বরেণ্য চিত্রশিল্পী এস এম সুলতানের ৯৪তম জন্মবার্ষিকী পালিত

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০

নড়াইল প্রতিনিধি

নড়াইলে বিশ্ববরেণ্য চিত্রশিল্পী এস এম সুলতানের ৯৪তম জন্মবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শুক্রবার সকালে জেলা প্রশাসন ও সুলতান ফাউন্ডেশন, জেলা শিল্পকলা একাডেমি, এস এম সুলতান বেঙ্গল চারুকলা মহাবিদ্যালয়, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, নড়াইল প্রেস ক্লাব, মূর্ছনা সংগীত নিকেতন, চিত্রা থিয়েটার, যুগান্তর সাংস্কৃতিক সংসদ, লাল বাউল সম্প্রদায়, সুলতান শিশু ও চারুকলা ফাউন্ডেশন, সপ্তর্ষিসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন শহরের কুড়িগ্রামের শিল্পীর সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। পরে সুলতান শিশুস্বর্গ ভবনে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, শিল্পীর স্মরণে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। জেলা প্রশাসক মো. এমদাদুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিমউদ্দিন পিপিএম, এস এম সুলতান ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান মিকু, নড়াইল প্রেস ক্লাবের সভাপতি মো. আলমগীর সিদ্দিকী, জেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি মলয় কু-ু, নারীনেত্রী আঞ্জু মান আরা প্রমুখ।

এদিকে শিল্পীর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে নড়াইলের সুলতান মঞ্চ ও শিশুস্বর্গে চার দিনব্যাপী ‘সুলতান উৎসবের’ আয়োজন করা হবে। সুলতান উৎসবে বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যে থাকবে ভারত ও বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের চারুকলা বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে আর্ট ক্যাম্প, চিত্র ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পুরস্কার, সম্মাননা ও পদক বিতরণ এবং নৌকাবাইচ। নড়াইল জেলা প্রশাসন, সুলতান ফাউন্ডেশন এবং এস এম সুলতান শিশু চারু ও কারুকলা ফাউন্ডেশন পৃথকভাবে এ উৎসবের আয়োজন করবে।

প্রসঙ্গত, ১৯২৪ সালের ১০ আগস্ট আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বরেণ্য এ শিল্পী নড়াইল শহরের মাছিমদিয়া এলাকায় দরিদ্র রাজমিস্ত্রি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯৪ সালের ১০ অক্টোবর যশোরের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিরকুমার এই গুণী শিল্পীর মহাপ্রয়াণ ঘটে। বরেণ্য এই শিল্পী তার জীবদ্দশায় ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ‘ম্যান অব দি ইয়ার’, নিউইয়র্কের বায়োগ্রাফিক্যাল সেন্টার থেকে ‘ম্যান অব অ্যাচিভমেন্ট’, এশিয়া উইক পত্রিকা থেকে ‘ম্যান অব এশিয়া’ পুরস্কার, বাংলাদেশ সরকারের রেসিডেন্ট আর্টিস্ট স্বীকৃতি, বাংলাদেশ চারুশিল্পী সংসদ সম্মাননা, একুশে ও স্বাধীনতা পদকসহ দেশি-বিদেশি অসংখ্য পদকে ভূষিত হন।

 

"