কালীগঞ্জ থানা পুলিশের পরিত্যক্ত ভবনে বসবাস

প্রকাশ : ১১ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) প্রতিনিধি

গাজীপুরের কালীগঞ্জ থানার ৮৮ জন পুলিশ কর্মকর্তা-কর্মচারী ঝুঁকিপূর্ণ পরিত্যক্ত ভবনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনের পর দিন বসবাস করছেন। ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে বসবাসকারীদের মধ্যে রয়েছেন থানার ইন্সপেক্টর, এসআই, এএসআই, পুরুষ ও নারী কনস্টেবল ও আনসার সদস্য।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, কালীগঞ্জ থানা কম্পাউন্ডে তিনটি ভবন রয়েছে। এর মধ্যে দুটি আবাসিক অন্যটি অফিস ভবন। তবে এই তিনটি ভবনের দুটিই পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে। একাধিকবার পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা থানা পরিদর্শনে এসে পরিদর্শন বইয়ে এ ভবন তিনটির ব্যাপারে মন্তÍব্য করেছেন। আর বছর তিনেক আগে ওই ভবন তিনটির মধ্যে দুটিকে পরিত্যক্ত ঘোষণাও করেছিলেন। এখানে নারী নিরাপত্তা কর্মীদের জন্য আলাদা কোনো আবাসিক ব্যবস্থা নেই।

কয়েকজন কনস্টেবল বলেন, থানা কম্পাউন্ডে তারা যে ভবনটির মেসে থাকেন সেই ভবনটির অবস্থা খুবই নাজুক। একটু বৃষ্টি হলেই ভবনের ছাদ গড়িয়ে পানি পড়ে। রাতে বৃষ্টি হলে ঘুমাতে পারেন না। অথচ লাখ লাখ টাকা খরচ করে বিলাশ বহুল গেট তৈরি করা হচ্ছে। কোটি টাকা খরচ করে বসিয়েছে ওয়ারলেস টাওয়ার। তারপরও বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ওইসব পরিত্যক্ত ভবনের বসবাস করতে হচ্ছে।

কালীগঞ্জ থানার ওসি আবুবকর মিয়া বলেন, আসলে ওয়ারলেস টাওয়ার ও থানার একটি গেট খুবই দরকারি জিনিস। বর্তমানে এখানে ঝুঁকিপূর্ণ যে ভবন রয়েছে সেটির বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া জরুরি। এ নিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলবেন বলেও জানান তিনি।

"