পাবনায় উদ্বোধনের আগেই ট্রেনের যন্ত্রাংশ চুরি

প্রকাশ | ০৮ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

পাবনা প্রতিনিধি

পাবনাবাসীর স্বপ্নের ট্রেন উদ্বোধনের আগেই ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশন ইয়ার্ডে পাওয়ার কার থেকে চুরির ঘটনা ঘটেছে। নিরাপত্তা বাহিনীর সার্বক্ষণিক পাহারার মধ্যেই এ ঘটনা ঘটেছে। গত শুক্রবার সকালে ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলীর কার্যালয়ের ক্যারেজ অ্যান্ড ওয়াগন ডিপোতে থাকা পাওয়ার কার খুলে ভেতরে প্রবেশ করলে এ ঘটনা দেখতে পান রেলওয়ে কর্মচারীরা। তবে কবে কখন চুরি হয়েছে তা বলতে পারছেন না কেউ। চুরি যাওয়া সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে মূল্যবান চারটি ব্যাটারি, তেল, সুইচ, ক্যাবল ইত্যাদি। যার মূল্য লক্ষাধিক টাকারও বেশি। আগামী ১৪ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক উদ্বোধনের পর ঈশ্বরদী-পাবনা-রাজশাহী রুটে চলাচল করবে বলে জানিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনায় গত শুক্রবার দুপুরে বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চল জোনের প্রধান বৈদ্যুতিক প্রকৌশলী প্রদীপ কুমার সাহা, প্রধান যান্ত্রিক প্রকৌশলী মৃনাল কান্তি সেন, পাকশী বিভাগীয় যান্ত্রিক প্রকৌশলী (লোকো) শেখ হাসানুজ্জামান, বিভাগীয় যান্ত্রিক প্রকৌশলী (ক্যারেজ) ময়েন উদ্দিন সরকার, বিভাগীয় বৈদ্যুতিক কর্মকর্তা খাইরুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পাকশী বিভাগীয় বৈদ্যুতিক কর্মকর্তা খাইরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, আগামী ১৪ জুলাই পাবনা-ঈশ্বরদী- রাজশাহী রুটে ‘পাবনা এক্সপ্রেস’ নামে ট্রেনটি চলবে। তার পূর্বে ঈশ্বরদী রেলওয়ে স্টেশনের ইয়ার্ড থেকে পাওয়ার কারের কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি রয়েছে কি না তা দেখার জন্য ঈশ্বরদী রেলওয়ে ক্যারেজ অ্যান্ড ওয়াগন ডিপোর ইনচার্জ গোলাম হাক্কানী, বৈদ্যুতিক উপকেন্দ্র ঈশ্বরদী শাখার ইনচার্জসহ রেলওয়ে কর্মচারীরা ঈশ্বরদীস্থ ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলীর কার্যালয় ক্যারেজ অ্যান্ড ওয়াগন ডিপোতে যান। সেখানে সিলগালা করা পাওয়ার কারের ৫৪০১নং কোচের দরজা খুলে ভেতরে গিয়ে চুরির দৃশ্য দেখতে পান। চোরেরা পাওয়ার কারের মূল্যবান ১২০ এম্পিয়ার ভোল্টের চারটি ব্যাটারি, ১৯৯ লিটার তেল, সুইচ, বৈদ্যুতিক ক্যাবলসহ মূল্যবান যন্ত্রাংশ চুরি করে নিয়ে গেছে। যার মূল্য লক্ষাধিক টাকারও বেশি। তিনি জানান, এ ব্যাপারে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংশনে নিরাপত্তা বাহিনীর (আরএনবি) চিফ ইন্সপেক্টর এ কে এম তৌফিকুর রহমান বলেন, পাওয়ার কারের সিলগালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশের সময় আমাদের কোনো সদস্যকে ডাকা হয়নি। এর দায়ভার আরএনবি সদস্যদের নয়।

"