কিশামত চেরেঙ্গা বাঁধ সংস্কারে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশ : ১৫ জুন ২০১৮, ০০:০০

গাইবান্ধা প্রতিনিধি

গাইবান্ধার পলাশবাড়ি উপজেলার কিশামত চেরেঙ্গা বাঁধ সংস্কারে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়ন অংশে এ অনিয়মের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয়রা। এতে তারা সিডিউল মোতাবেক সঠিকভাবে কাজ সম্পন্ন করার দাবি জানিয়েছেন। তাদের অভিযোগ, এরপরও ঠিকাদার তার ইচ্ছেমতো কাজ অব্যাহত রেখেছেন।

কিশামত চেরেঙ্গা বাঁধ সংস্কারের জন্য সরকার পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে ৩ কোটি ৪০ লাখ টাকা বরাদ্দ করে। নিয়ম অনুযায়ী দূর থেকে বালি ও মাটি এনে তা দিয়ে বাঁধ ভরাট করার কথা। কিন্তু বাঁধের কাছের জমি থেকেই বালি তুলে তা বাঁধে দেওয়া হচ্ছে। এর ফলে বাঁধটি বর্ষাকালে ধসে যেতে পারে। এতে ওই বাঁধ সংস্কারে সরকারি বরাদ্দের সিংহভাগ টাকাই গচ্চা যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

হোসেনপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান তৌফিকুল আমিন মন্ডল টিটু প্রতিদিনের সংবাদকে জানান, কাজের দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকে ঠিকাদার সিডিউল বহির্ভূতভাবে কাজ করতে থাকেন। বাঁধটি যেভাবে মেরামত করার কথা, তা না করে গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্মকর্তাদের যোগসাজশে সিডিউলের নকশা বহির্ভূতভাবে মেরামত করা হচ্ছে। এর জন্য জমির মালিকরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। ক্ষতিগ্রস্ত জমির মালিকরা এ ব্যাপারে গণস্বাক্ষর নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ করেন। তিনি জমির মালিকদের পক্ষে প্রতিবাদ জানিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। কিন্তু ঠিকাদার কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে বাঁধ সংস্কার কাজ অব্যাহত রেখেছেন বলে অভিযোগ করেন চেয়ারম্যান টিটু। এ ব্যাপারে বাঁধ সংস্কার কাজে তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোজাম্মেল হোসেন জানান, এসব অভিযোগ সত্য নয়। নিয়ম মাফিকই কাজ হচ্ছে।

"