নবাবগঞ্জে ঈদগাহ সংস্কারের নামে ১২ আমগাছ কর্তন

প্রকাশ : ১২ জুন ২০১৮, ০০:০০

দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুর নবাবগঞ্জ উপজেলার বিনোদনগর ঈদগাহ মাঠ সংস্কারের নামে সরকারি খাস সম্পত্তিতে থাকা ১২টি পুরনো ফলবান আমগাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ৬ জুনের এ ঘটনায় ঈদগাহ মাঠ কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে গতকাল সোমবার। উপজেলার বিনোদনগর ইউনিয়নের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রেজওয়ান এই মামলাটি করেন। অভিযুক্ত একজনের দাবি, প্রায় দুই মাস আগে গাছ কাটার অনুমতি চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে আবেদন করেছেন। তবে তা অনুমোদিত হয়েছে কি না, তা জানেননি তিনি।

স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বিনোদনগর ঈদগাহ মাঠের জমির পরিমাণ শূন্য দশমিক ৫২ একর। গত ৬ জুন এই জমির ওপর থাকা আমগাছগুলো কাটা শুরু করেন ঈদগাহ মাঠ কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ পাঁচ-ছয়জন প্রভাবশালী ব্যক্তি। পরে তারা রাতের আঁধারে কাটা গাছগুলো মাঠ থেকে সরিয়ে ফেলেন। যার বাজারমূল্য দেড় লক্ষাধিক টাকা। এদিকে বিনোদনগর ইউনিয়নের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা রেজওয়ান স্থানীয় লোকজনের মুখে খবর পেয়ে গতকাল সোমবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি তিনটি গাছ ডাল কাটা অবস্থায় দেখতে পান। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিক নবাবগঞ্জ থানায় ছয়জনের নাম উল্লেখ করে এজাহার করা হলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে কিছু গাছ জব্দ করে বিনোদনগর ইউনিয়ন পরিষদে রাখে।

জানতে চাইলে বিনোদনগর ঈদগাহ মাঠের সহসভাপতি জিয়াউর রহমান মানিক জানান, ঈদগাহ মাঠটি সংস্কারের জন্য গাছগুলো কাটা হয়েছে। এই মাঠে প্রায় ১৪টি মহল্লার মানুষ নামাজ পড়তে আসেন। তাই কমিটির লোকরা মাঠের ভেতরের কটি গাছ কেটে তার অর্থ দিয়ে মাঠের সংস্কারকাজের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

 

"