কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ

প্রকাশ : ১১ জুন ২০১৮, ০০:০০

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরে পুকুর থেকে আসমা আক্তার (১৪) নামের এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে স্বজনরা। ধর্ষণের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ তাদের। গত শনিবার রাত দেড়টায় আসমাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। একই সঙ্গে শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানান। আসমা সদর উপজেলার শাকচর গ্রামের ফয়েজ আহমদের মেয়ে। জানা গেছে, গত শনিবার আসমাকে বাড়িতে রেখে তার বাবার কর্মস্থল ফেনীতে যান মা। আসমার দেখভালের জন্য নানি হালিমা বেগমকে দায়িত্ব দিয়ে যান তিনি। সন্ধ্যার পর আসমাকে নিজবাড়িতে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করেন নানিসহ স্বজনরা। পরে রাতে বাড়ির পাশের পুকুরে বিবস্ত্র অবস্থায় আসমাকে ভাসতে দেখে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

নিহতের মামা হানিফ ও নানি হালিমা বলেন, বিবস্ত্র অবস্থায় পুকুর থেকে আসমার লাশ উদ্ধার করা হয়। তাকে ধর্ষণ শেষে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ তাদের। সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জয়নাল আবদীন বলেন, আসমাকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি লোকমান হোসেন জানান, প্রাথমিকভাবে হত্যাকান্ড বলেই ধারণা করা হচ্ছে। লাশ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে হত্যা ও ধর্ষণ হয়েছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যাবে।

"