উল্লাপাড়া

শতাধিক সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

প্রকাশ : ১১ জুন ২০১৮, ০০:০০

সাহারুল হক সাচ্চু, উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ)

সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের (এলজিইডি) আওতাধীন বন্যানিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধ থেকে শতাধিক সরকারি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল রোববার এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ থেকে গাছ কাটায় ছয়জন জড়িত থাকার বিষয়ে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে বলে জানা গেছে। জড়িতদের মধ্যে বড়হর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য বাবলু কুমার রায়ও রয়েছেন।

স্থানীয় উপজেলা প্রকৌশল বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বিগত ২০০৬ সালে বড়হর ইউনিয়নের প্রায় সাত কিলোমিটার বন্যানিয়ন্ত্রণ বেড়িবাঁধে ক্ষুদ্র পানিসম্পদ বিভাগ থেকে বিপুলসংখ্যক ইউক্যালিপটাসসহ বিভিন্ন জাতের চারা গাছ লাগানো হয়। গত কয়েক বছরে গাছগুলো অনেক বড় হয়েছে। এ বাঁধের মৈত্রপাড়া বড়হর এলাকা থেকে গত ৫/৬ দিনে শতাধিক গাছ কাটা হয়েছে। এসব গাছ পূর্বদেলুয়া এলাকায় ইউপি সদস্য বাবলু কুমার রায়ের স’ মিলে রাখা আছে বলে জানানো হয়। গাছগুলোর আনুমানিক মূল্য প্রায় ৩ লাখ টাকা বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

উপজেলা প্রকৌশল বিভাগের কমিউনিটির অর্গানাইজার মো. সামছুজ্জামান জানান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নির্দেশ মোতাবেক সরেজমিনে তদন্ত করে এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে। এতে ইউপি সদস্য বাবলু কুমার রায়সহ ভুতগাছা এলাকার আফজাল শেখ, নান্নু শেখ, আবদুল মান্নান, আয়েজ ও নজরুল ইসলাম জড়িত রয়েছে বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

তিনি আরো জানান, শতাধিক গাছ কেটে নেওয়া হয়েছে। এ প্রতিবেদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় ও মডেল থানায় দাখিল করা হয়েছে।

অভিযোগের বিষয়ে ইউপি সদস্য বাবলু কুমার রায় জানান, তিনি গাছ কাটায় জড়িত নন। এলাকার লোকজন গাছগুলো তার স’ মিলে এনে রেখেছে।

উল্লাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আরিফুজ্জামান বলেন, অভিযোগ পেয়ে সরেজমিনে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের বিষয় স্থানীয় এলজিইডি বিভাগকে জানানো হয়। তারা তদন্ত করে গতকাল রোববার প্রতিবেদন দাখিল করেছে। এ প্রতিবেদন মোতাবেক সরকারি সম্পদ আত্মসাতে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও জানান তিনি।

"