চুরির ঘটনা দেখে ফেলায় শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যা

প্রকাশ : ১০ জুন ২০১৮, ০০:০০

খুলনা ব্যুরো

খুলনায় চুরির ঘটনা দেখে ফেলায় শিশু মো. সম্রাট খানকে (১১) শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে নিহতের পরিবারের দাবি। তবে পুলিশ ঘটনাটিকে ‘রহস্যজনক’ বলে সন্দেহ করছে।

গতকাল শনিবার সকাল ৮টার দিকে নগরীর দৌলতপুরস্থ পাবলা দফাদার পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ সকাল ৯টার দিকে লাশ উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। নিহত সম্রাট স্থানীয় ফার্নিচার ব্যবসায়ী জাহিদ খানের ছেলে।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, সকালে বাবা জাহিদ খান ঘরের দরজা খুলে তার বড় কন্যাকে সঙ্গে নিয়ে বাইরে যায়। এর কিছুক্ষণ পর তার মা পাশের বাড়িতে যায়। ঘরে একাই ঘুমিয়ে ছিল সম্রাট। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তারা ঘরে ফিরে আসে। এ সময় ঘরের আসবাবপত্র তছনছ অবস্থায় দেখতে পায়। পরে সম্রাটকে ডাকাডাকি করলে সে আর ওঠেনি। তার মৃতদেহের গলায় ফাঁসের চিহ্ন ছিল। পরিবারের ধারণা, ঘরের দরজা খোলা পেয়ে হয়তো চোর ঢুকেছিল। কিন্তু সম্রাট দেখে ফেলায় তাকে হত্যা করে পালিয়ে যায়।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাক আহমেদ বলেন, হত্যাকান্ডের বিষয়টি প্রাথমিকভাবে রহস্যজনক মনে হচ্ছে। বিশেষ করে ঘটনার সময় বাড়িতে অন্যকেউ না থাকা এবং ছেলেটি কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন থাকায় প্রায় তার বাবা তাকে মারধর করত বলে তথ্য পাওয়ায় সন্দেহ আরো বেড়েছে। তদন্তের পরই প্রকৃত রহস্য জানা যাবে।

"