গরমে অতিষ্ঠ সিলেটের জনজীবন

প্রকাশ : ১০ জুন ২০১৮, ০০:০০

মুহাজিরুল ইসলাম রাহাত, সিলেট

সিলেটে তীব্র তাপদাহে পুড়ছে জনজীবন। গেল সপ্তাহজুড়ে সূর্যের দাপট অতটা বেশি না থাকলেও ভ্যাপসা গরমে নাকাল সিলেটের মানুষ। একদিকে রমজান মাস, তার উপর গরমের তীব্রতায় তৃষ্ণার্ত মানুষ ও প্রাণীকুলে নাভিশ্বাস উঠেছে। চারিদিকে একটু শীতল পরশ লাভের জন্য মানুষের যেন ব্যাকুল প্রচেষ্টা।

গত কয়েকদিনের অসহ্য গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা রাস্তায় বের হওয়া মানুষের। দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে জীবনযাত্রা। একান্ত জরুরি কাজ ছাড়া ঘর থেকে রাস্তায় বের হওয়া যাচ্ছে না। চোখে-মুখে যেন আগুনের তাপ লাগছে। সব মিলিয়ে বাকি রমজানেও সিলেটবাসীর জন্য তেমন কোনো সুখবর নেই। সিলেটের আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী ৩ থেকে ৪দিন এমন তাপদাহ অব্যাহত থাকতে পারে। এদিকে অসহনীয় গরমরে সাথে পাল্লা দিয়ে সিলেট জুড়ে বেড়েছে বিদ্যুতের লোডশেডিং। গতকাল শনিবার বিদ্যুতের দাবিতে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করেছে বিক্ষুব্ধ জনতা। বেলা দেড়টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত ঘণ্টাব্যাপী সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে তারা। তারা জানান, সাহরি, ইফতার ও তারাবির সময় বিদ্যুৎ না থাকায় রমজানে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। বারবার বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে আনা হলেও তারা আমলে নিচ্ছেন না। তাই বাধ্য হয়ে তাদেরকে রাস্তায় নামতে হচ্ছে। এ সময় মহাসড়কে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। পরে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। সিলেটের আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, সাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টির প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় হঠাৎ করে ভ্যাপসা গরম অনুভূত হচ্ছে। এই অবস্থা বেশিদিন থাকবে না। ৩ থেকে ৪ দিনের মধ্যে আবারও বৃষ্টিপাত শুরু হবে বলে জানা গেছে। এদিকে আজ শনিবার দুপুর ১টা পর্যন্ত রেকর্ড করা সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর গত শুক্রবার সিলেটের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৫.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বনিম্ন ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সিলেট আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী জানান, জ্যৈষ্ঠ মাসে খরাপূর্ণ আবহাওয়া থাকাটাই স্বাভাবিক। তবে এ বছর বৈশাখ ও জ্যৈষ্ঠ মাসে বৃষ্টিপাতের কারণে তাপমাত্রা কম ছিল। গত দুই দিন বৃষ্টিপাত কম হওয়ার পাশাপাশি তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বেশ গরম অনুভূত হচ্ছে। সমুদ্রে নিম্নচাপের কারণে এ বছর সিলেট অঞ্চলে বৃষ্টি কম হওয়াতে গরমটা বেশি অনুভূত হচ্ছে। তিনি আরো জানান, সিলেট ও আশপাশ এলাকার ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা আগামী ৩ থেকে ৪দিন অব্যাহত থাকতে পারে। তবে চলতি মাসের মাঝামাঝি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

"