ঈদে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটের বিশেষ প্রস্তুতি

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০১৮, ০০:০০

মো. আজিজুল হাকিম, মানিকগঞ্জ

আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় ২১ জেলার মানুষ যাতে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে নির্বিঘেœ যাতাযাত করতে পারে সেজন্য বিশেষ ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে জেলা প্রশাসক, পুলিশ বিভাগ, সড়ক ও জনপথ বিভাগ, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি), বাংলাদেশ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ), লঞ্চ মালিক সমিতি ও স্বাস্থ্য বিভাগসহ বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তারা।

বিআইডব্লিউটিসি’র আরিচা এরিয়া অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার আজমল হোসেন বলেন, ঈদে সাধারণ যাত্রীদের চাপ সামলাতে ঈদ উপলক্ষে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে মোট ২০টি ফেরি চালু রাখা হবে। এর মধ্যে ৯টি রো-রো (বড়), ৬টি ইউটিলিটি, ৪টি কে টাইপ ফেরি ও একটি মিডিয়াম ফেরি রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এবার ঈদে ফেরি মেরামত করার জন্য কারখানার সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে এবং ঘাট এলাকায় সবসময় চারটি রেকার চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসন নাজমুছ সাদাত সেলিম জানান, ঈদে ঘরমুখো মানুষ যাতে নৌপথে ডাকাতি ও চাঁদাবাজির শিকার না হয়। যাত্রীবাহী বাস, লঞ্চ যাতে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ও অতিরিক্ত যাত্রীবহন না করে সেজন্য জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের সমন্বয়ে মোবাইল কোর্টের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও ঘরমুখো যাত্রীদের সুবিধার্তে টয়লেটে পানি সরবরাহ ও পরিচর্যার জন্য স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে বলা হয়েছে। ঘাট এলাকায় ২০টি টয়লেট নির্মাণ করা এরমধ্যে ১০টি টয়লেট নারীদের জন্য সংরক্ষিত থাকবে।

মানিকগঞ্জের সিভিল সার্জন খুরশিদ আলম বলেন, ফেরি পার অথবা ঘাট এলাকায় যদি যাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়েন। সেজন্য অসুস্থ যাত্রীদের জন্য মানিকগঞ্জ সিভিল সার্জন এর পক্ষ থেকে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় একটি অস্থায়ী মেডিক্যাল ক্যাম্প পরিচালনা করা হবে।

আইন শৃঙ্খলার ব্যাপারে মানিকগঞ্জের পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম বলেন, ঈদের আগে ও পরের তিনদিন পন্যবাহী ট্রাক পারাপার বন্ধ থাকবে। সিরিয়াল অনুযায়ী ফেরিতে যানবাহন ওঠা-নামা করতে হবে। এক্ষেত্রে কোন অনিয়ম হলে সাথে সাথেই ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য আরসিএল মোড় থেকে ঘাট এলাকায় বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন ও হ্যালোজেন বাতি লাগানো হবে। মহাসড়কে নসিমন, করিমন, ভটভটি, ইজিবাইক, মাহিন্দ্র চলাচল নিষেধ করা হয়েছে। রাতে স্পিডবোট চলাচল বন্ধ রাখা এবং দিনে স্পিডবোট চলাচল করা হবে। সেই সাথে রাতে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে মালবাহী জাহাজ ও বালুবাহী বাল্কহেড চলাচল বন্ধ রাখা হবে।

"