মুরাদনগরে ঝড়ে বিধ্বস্ত স্কুলের পাঠদান বন্ধ

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০১৮, ০০:০০

মুরাদনগর (কুমিল্লা)

কালবৈশাখী ঝড়ে বিধ্বস্ত হওয়ায় কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার হাটাশ আদর্শ এসআর উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অতিরিক্ত ক্লাস (কোচিং) পাঠদান বন্ধ রয়েছে। এতে চরম হতাশায় রয়েছে ২০১৯ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ সব শিক্ষার্থী। হাটাশ আর্দশ এসআর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মোতালেব মিয়া জানান, গত ১১ মে উপজেলার ওপর দিয়ে বয়ে যায় কালবৈশাখী ঝড়। ওই ঝড়ে হাটাশ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালে ৫০ হাত লম্বা টিনের নির্মিত স্কুল ঘরটি সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়। এ সময় বিদ্যালয়ের প্রায় ২০ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। বিধ্বস্ত টিনের ঘরটিতে অষ্টম, নবম ও দশম শ্রেণিসহ অতিরিক্ত দুটি শাখার ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদান করা হতো। স্কুল বিধ্বস্ত হওয়ার পর কিছুদিন বিদ্যালয়ের মাঠে ও অন্য ভবনের বারান্দায় ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস করানো হচ্ছে যা সামান্য বৃষ্টি এলেই পাঠদান সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যায়। মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার শফিউল আলম তালুকদার বলেন, বিধ্বস্ত বিদ্যালয়টির বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মিতু মরিয়ম জানান, উপজেলা প্রশাসন থেকে আর্থিক যে সহায়তা দেওয়া যায় সেটা খুবই সামান্য। জেলা প্রশাসন থেকে স্কুলটির সংস্কার কাজের জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে কুমিল্লা জেলা প্রশাসককে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। আর্থিক সহায়তার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

"