ব্রিজের স্লিপার ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৮, ০০:০০

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

বরগুনার আমতলীর হলদিয়া ও পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার ঘোলখালী ইউনিয়নের টেপুরা খালের ওপর নির্মিত আয়রন ব্রিজটির স্লিপার ভেঙে পড়েছে। এতে দুই ইউনিয়নের মধ্যে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় বিপাকে পড়েছেন পাঁচটি গ্রামের ২৫ হাজার মানুষ।

জানা গেছে, ২০০৫ সালে টেপুরা খালে এ আয়রন ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়। আমতলীর হলদিয়া ইউনিয়নের টেপুরাবাজার সংলগ্ন এ ব্রিজটি দিয়ে প্রতিদিন বলইবুনিয়া, নলুয়াবগী, টেপুরা, উত্তর টেপুরা, দক্ষিণ টেপুরা ও তক্তাবুনিয়া গ্রামের জনসাধারণ চলাচল করেন। এর আগে ৪ থেকে ৫ বছর আগে স্লিপার ভেঙে পড়লে স্থানীয়রা চাঁদা তুলে জোড়াতালি দিয়ে তা ঠিক করে চলাচলের উপযোগী করেন। সম্প্রতি ব্রিজটির স্লিপার ভেঙে পড়ায় দুর্ভোগে পরিণত হয়েছে। টেপুরা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য আবু সালেহ বলেন, ব্রিজটির স্লিপার ভেঙে পড়ায় সাধারণ মানুষের চলাচল বন্ধ রয়েছে।

বলইবুনিয়া গ্রামের বনি আমিন বলেন, এই ব্রিজটি দুই ইউনিয়নের মানুষের পাঁচটি গ্রামের মানুষের যোগাযোগের মাধ্যম। এই ব্রিজ পার হয়েই ঘোলখালী ইউনিয়নের বলইবুনিয়া গ্রামের অনেক ছাত্রছাত্রী টেপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করতে আসেন। ব্রিজটির স্লিপার ভেঙে পড়ায় স্কুল মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা বিপাকে পড়েছে।

এ বিষয়ে গলাচিপা উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী আতিকুর রহমান জানান, স্লিপার ভেঙে পড়া ওই ব্রিজের পাশে আরেকটি গার্ডার ব্রিজ নির্মাণের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

"