দফতরি নিয়োগে অনিয়ম

জামালপুরে ইউএনওসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৮, ০০:০০

জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুর সদর উপজেলার চালাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দফতরি-কাম-প্রহরী নিয়োগে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ এনে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। গত রোববার বিকালে জামালপুর সদর সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলাটি করা হয়।

মামলা ও বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর চালাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একজন দফতরি-কাম-প্রহরী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। ওই পদের জন্য আটজন প্রার্থী আবেদন করেন। আবেদনে ভুলত্রুটি থাকায় আটজন প্রার্থীর মধ্য থেকে যাচাই-বাছাইয়ে নূর নবীসহ পাঁচজনকে বাদ দেওয়া হয়। কিন্তু গত ২৮ এপ্রিল প্রাথমিক যাচাই-বাছাইয়ে বাদপড়া চারজনসহ সাতজনকে নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার জন্য প্রবেশপত্র দেন নিয়োগ কমিটি। গত ৮ মে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় অংশ নেন ছয়জন প্রার্থী। পরীক্ষায় বাদপড়া প্রার্থীরা অংশ নেওয়ার বিষয়টি নিয়ে বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও নিয়োগ কমিটির সদস্য এ টি এম হুমায়ুন কবীর প্রতিবাদ জানান এবং পরীক্ষা প্রত্যাখ্যান করেন। ওইদিনই তার অনুপস্থিতিতেই প্রাথমিক বাছাইয়ে বাতিলকৃত প্রার্থী নূর নবীকে চূড়ান্ত করা হয়। পরে গত ৯ মে নূর নবীকে নিয়োগপত্র দেওয়া হয়। ওই নিয়োগে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ এনে গত রোববার বিকালে বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও নিয়োগ কমিটির সদস্য এ টি এম হুমায়ুন কবীর বাদী হয়ে আদালতে একটি মামলা করেন।

মামলায় বিবাদীরা হলেন জামালপুর সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মফিজুর রহমান, ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জোবাইদা নাজনীন, সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুবকর সিদ্দিক, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবদুল আওয়াল, উপজেলা চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি মিজানুর রহমান ও নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত দফতরি-কাম-প্রহরী নূর নবী। সদর নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মফিজুর রহমান বলেন, চূড়ান্ত যাচাই-বাছাই কমিটির অনুমোদিত প্রার্থীকে বিধিমোতাবেক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। মামলার কপি বা নোটিশ পেলে আইনগতভাবে বিষয়টি দেখা হবে।

"