যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে মারপিট ও গর্ভপাত : স্বামী গ্রেফতার

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলায় যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে মারপিট ও তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে গর্ভপাত ঘটনো সংক্রান্ত মামলায় পুলিশ গত শনিবার রাতে স্বামী সামিউল ইসলাম (৩৫) কে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত সামিউল ইসলাম উপজেলার কামারপুকুর গ্রামের সামছুর রহমানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, ওই গ্রামের সামিউল ইসলামের সাথে নন্দীগ্রাম উপজেলার বাশো নওয়াপাড়ার গ্রামের লায়েত আলীর মেয়ে আদরীকে সম্প্রতি বিয়ে করে। বিয়ের সময় যৌতুক হিসাবে ৩০ হাজার টাকা প্রাদন করে আদরীর বাবা। আরো যৌতুক দাবী করে আদরীকে তার স্বামী ও স্বশুড় স্বাশুড়ি নির্যাতন করত।

গত ৯ মার্চ রাতে যৌতুক দাবী করে গর্ভবতি স্ত্রী আদরীকে ফের মারপিট ও নির্যাতন তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে গর্ভপাত ঘটিয়ে বাড়ীতে আটক রাখে। কিছুটা সুস্থ্য হবার পর আদরী তার বাবার বাড়ীতে মোবাইলে সংবাদ দিলে তারা উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান।

এ ঘটনায় নির্যাতিতা আদরী বেগম বাদি হয়ে বগুড়া আদালতে তার স্বামী সামিউল ইসলাম স্বশুড় ও স্বাশুড়িকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। আদালত মামলটি আমলে নিয়ে এজাহার হিসাবে গ্রহন করে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য ওসি আদমদীঘিকে নির্দেশ প্রদান করেন। গত শনিবার রাতে মামলাটি রেকর্ডভুক্ত করে বাদির স্বামী সামিউল ইসলামকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরন করা হয় বলে মামলার তদন্তকারি উপ-পরিদর্শক ফজলুল হক জানান।

"