ধুনটে স্ত্রীর ঝুলন্ত ও রূপগঞ্জে ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার

প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

বগুড়া ও রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় স্বামীর ঘর থেকে মহিমা খাতুন (২৮) নামে দুই সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মহিমা খাতুন উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের নজরুল ইসলামের স্ত্রী। এদিকে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে জমির আলী (৩৪) নামে এক দই ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার সকালে উপজেলার দক্ষিণ রুপসী এলাকার শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ওই ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত জমির আলী দক্ষিণ রূপসী এলাকার মৃত আজগর আলীর ছেলে। থানা পুলিশ ও স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বগুড়া প্রতিনিধি জানান, শুক্রবার বিকেলের দিকে পূর্ব বিরোধের সূত্র ধরে মহিমাকে মারধর করে নজরুল ইসলাম বাড়ির অদুরে বাজারে কেনাকাটার জন্য যায়। রাত ৯টার দিকে নজরুল বাড়ি ফিরে এসে শয়ন ঘরের ভেতর তীরের সাথে মহিমার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায়। এ সময় তার ২ সন্তান বাড়িতে ছিল না। ধুনট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফারুকুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অস্বাভাকি মৃত্যু মামলা (ইউডি) রেকর্ড করে মহিমার লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রূপগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নুরুজ্জামানের বরাত দিয়ে রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, রোববার সকালে দক্ষিণ রুপসী এলাকার শীতলক্ষ্যা নদীতে জমির আলীর লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। তবে নিহত জমির আলীর পরিবারের দাবি, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় তার স্বামী জমির আলী দই বিক্রি করতে চনপাড়া পূর্নবাসন কেন্দ্রে যায়। সেখানে পুর্ব শত্রুতার জের ধরে স্থানীয় জাহাঙ্গীর ও মতিনের সঙ্গে জমির আলীর বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে জমির আলীকে ধাওয়া দিয়ে শীতলক্ষ্যা নদীতে ফেলে দেয়। এরপর থেকেই জমির আলী নিখোঁজ ছিলেন।

"