ধর্ষণ মামলার ১৫ দিনেও আটক হয়নি অভিযুক্ত

প্রকাশ : ১৩ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

মনোহরদী (নরসিংদী) প্রতিনিধি
ama ami

নরসিংদীর মনোহরদী উপজেলায় রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনার ১৫ দিন অতিবাহিত হলেও অভিযুক্ত কামরুল ইসলামকে (২৫) গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ফলে বিচার পাওয়া নিয়ে হতাশ হয়ে পড়েছেন নির্যাতিতার পরিবার। তবে পুলিশের দাবি আসামি গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে। অভিযুক্ত কামরুল কৃষ্ণপুর গ্রামের সুরুজ মিয়ার ছেলে। ধর্ষণের শিকার ওই ছাত্রী স্থানীয় একটি মাদরাসা থেকে এ বছর দাখিল পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছে।

ওই ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ২৯ মার্চ বিকালে উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নে মাদরাসা ছাত্রী বাড়ি থেকে পার্শ্ববর্তী চাচার বাড়িতে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে একই গ্রামের লম্পট কামরুল ইসলাম তার মুখ চেপে ধরে জৈনিক দেওয়ান আলীর নির্জন পরিত্যাক্ত বাড়িতে নিয়ে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণ করে। পরে ওই ছাত্রীকে ঘরের ভিতরে আটকে রেখে বাহির থেকে দরজা লাগিয়ে পালিয়ে যায় কামরুল। পরে ওই ছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয়রা উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে। ঘটনার পরদিন বিকালে ওই ছাত্রীর পিতা বাদি হয়ে মনোহরদী থানায় ধর্ষক কামরুল ইসলামকে একমাত্র আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

 

"