শান্তিপুর ও মর্দনপুরের সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে

প্রকাশ : ১৫ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়নের শান্তিপুর গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসির মধ্যে ভয়াবহ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে টেটাবিদ্ধসহ অন্তত অর্ধশতাধিক লোকজন আহত হয়েছে। বুধবার সকাল ৮ টা থেকে সাড়ে ১১ টা পর্যন্ত দফায় দফায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে আশংকাজনক অবস্থায় টেটাবিদ্ধ আলামিনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যান্য আহতদের হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজলোর শান্তিপুর গ্রামের জালাল উদ্দিনের সাথে দীর্ঘদিন যাবত গ্রাম্য বিরোধ চলে আসছে পার্শ্ববর্তী মর্দনপুর গ্রামের হাজী কবির মিয়ার। এনিয়ে বুধবার সকালে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে বাকবিত-া হয়।

এক পর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে বানিয়াচং থানা ও বিথঙ্গল থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

আহত অবস্থায় নিজমা আক্তার, রোমান মিয়া, সুরুজ আলী, নোমান মিয়া, মিঃ আলী, তোফাজ্জুল, হাফিজুল, মাজিরুল, গাউছ, সুরুত আলী, শাহেনা আক্তার, নামজা আক্তার, নাইম, শাহীনুর, মাছুম, ইব্রাহিম, ইরাজুল, মফিজুল, মারুফ মিয়া, জালাল মিয়া, ইমন মিয়া, রাফিজুল, কালিদুর মিয়া, রাসেল মিয়া, শাহীনুর আলমসহ ৩০ জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যান্য আহতদের স্থানীয় ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

বানিয়াচং থানার ওসি মোজাম্মেল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আধিপত্যের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। পুনরায় সংঘর্ষ এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

 

"