ছয় দফা দাবিতে আন্দোলনে সিটি ও পৌর কর্মচারীরা

প্রকাশ : ১৪ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

বাংলাদেশ সিটি ও পৌর কর্মচারী ফেডারেশনের ডাকে পেনশন চালুসহ ছয় দফা দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে রংপুর সিটির করপোরেশন ও কালীগঞ্জ পৌরসভার কর্মচারীরা। গতকাল মঙ্গলবার দিনভর তারা নিজ নিজ কার্যালয়ের সামনে এ কর্মসূচি পালন করেন। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ।

রংপুর ব্যুরো : গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টায় রংপুর সিটি কর্পোরেশন কর্মচারী এসোসিয়েশনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। সকালে তারা সিটি কর্পোরেশনের প্রধান ফটকে গেইট মিটিং ও অবস্থান নেন।

এ সময় বক্তারা বলেন, সিটি ও পৌর কর্মচারীদের পেনশন প্রথা চালু, সরকারি কোষাগার থেকে বেতন ভাতা প্রদান, সিটি ও পৌর বিধিমালা ৫৩ (২), ৫৪(২) ও ৬৮ ধারাসহ কালো আইন বাতিল পূর্বক সকল প্রকার মাস্টাররোল কর্মচারিদের চাকরি স্থায়ীকরণ, নিয়োগের ক্ষেত্রে কর্মকর্তা- কর্মচারীর পোষ্যদের পোষ্য কোটায়) চাকরি প্রদান ও পদের যোগ্যতা অনুযায়ী পদোন্নতি প্রদান করার দাবি জানানো হয়। আগামী ১৯ ও ২০শে মার্চ সকাল ১১ থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত কলম ও কর্মবিরতি, ২৮ মার্চ স্থানীয় সরকারে কাছে স্মারকলিপি প্রদান এবং ৫ এপ্রিল সকাল ১১টায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে।

এতে এসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলাম দুলু, বাংলাদেশ সিটি ও পৌর কর্মচারি ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সদস্য আইয়ুব হোসেন সরকার, রংপুর সিটি কর্পোরেশন কর্মচারি এসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রহিম বাবলু,দপ্তর সম্পাদক নাঈমউল হক, সদস্য শরিফা আবেদীন জেবা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

কালীগঞ্জ (গাজীপুর) : গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌরসভার মূল ফটকে ঝুলছে তালা। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সরেজমিনে কালীগঞ্জ পৌরসভার সামনে গিয়েও দেখা গেছে, পৌর ফটকে তালা ঝুলছে ও ব্যানার সাটানো। তাতে বড় করে লেখা দাবি আদায়ের আন্দোলনে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ঢাকায় অবস্থান করছেন। আর সেবা প্রত্যাশিদের সাময়িক অসুবিধার জন্য তারা পৌরবাসীর কাছে আন্তরিকভাবে দুঃখিত। এ ব্যাপারে পৌর সচিব মো. মিলন মিয়া ও বাংলাদেশ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশন ঢাকা বিভাগীয় যুগ্ম সম্পাদক দুলাল মোড়ল মুঠোফোনে প্রতিবেদককে জানান, পৌরবাসীদের সেবা তারাও করতে চান। তবে তাদের দাবি আদায় হলেই কেবল তারা কাজে যোগ দিবেন। দাবি আদায় না হলে তাদের এ আন্দোলন অনির্দিষ্টকালের জন্য চলবে বলেও জানান তারা। কালীগঞ্জ পৌর মেয়র মো. লুৎফুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে তার কিছু বলার বা করার নেই।

 

"