খানসামার ‘সাথি বাগানে’ হাসছে কৃষক

প্রকাশ : ১৩ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

তারিকুল ইসলাম চৌধুরী, খানসামা (দিনাজপুর)

দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় বান্যিজিকভাবে আম, লিচু, সুপারিসহ বিভিন্ন বাগানে সাথি বাগান হিসেবে লেবু চাষ শুরু হয়েছে। এতে কোন কীটনাশক, সার সেচ লাগে না। আম বা লিচু বাগানের ঘেরা হিসেবেও লেবু চাষ করতে আগ্রহী হচ্ছেন উপজেলার বেশির ভাগ বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরা। সাথি বাগান একদিকে যেমন আম বা লিচু বাগানের চতুর্দিকে ঘেরা হচ্ছে অপর দিকে বিনা খরচে প্রতি সপ্তাহে লেবু বিক্রি করে বাড়তি আয় করছেন কৃষকরা।

উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে সরজমিনে দেখা গেছে-আম, লিচু ও সুপারি বাগানের চতুর্দিকে বেষ্টনি বা ঘেরার মত লেবু গাছ সারিবদ্ধ লাগিয়ে সাথি বাগান হিসেবে বাণিজ্যিকভাবে লেবু চাষ শুরু করেছেন বিভিন্ন এলাকার বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরা।

ডাঙ্গাপাড়ার লিচু বাগান মালিক সরুমল্লা জানান, লেবু চাষে একেবারেই খরচ লাগে না। ছয় বছর আগে লিচু বাগানের চতুর্দিকে সারিবদ্ধভাবে কয়েক শ’ লেবু গাছের কলম লাগান তিনি। লেবু গাছে পরিচর্যায় তেমন খরচ লাগে না। বিনা খরচে লেবুর প্রত্যেক গাছে থোকায় থোকায় ফল ধরে। পাইকারি দরে লেবু বিক্রি করে সপ্তাহে ২-৪ হাজার টাকা আয় করেন তিনি। তিনি জানান, সাথী বাগান হিসেবে লেবু চাষ করা দেখে উদ্বুদ্ধ হয়ে এলাকার আরো অনেকেই লেবু চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।

কাচিনিয়ার রকিবুল জানান, আম বাগানের চতুর্দিকে তিনি সারিবদ্ধভাবে প্রায় ২০০ লেবু চারা গাছ লাগিয়েছেন। আম বাগানের চতুর্দিকে লেবু গাছ ঘেরা থাকার কারণে কোন পশু বাগানে প্রবেশ করতে পারে না। প্রতি সপ্তাহে লেবু বিক্রি করে তিনি ২-৩ হাজার টাকা পর্যন্ত বাড়তি আয় করেন বলে জানান।

"