বিজয়নগরে ভাঙা ব্রিজে ঝুঁকিপূর্ণ পারাপার

প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

বিজয়নগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার হরষপুর-সিঙ্গারবিল সড়কের আউলিয়া বাজার এলাকায় একটি ব্রিজজের মাঝে ভেঙে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এরই মধ্যে মারাতœক ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে এলাকাবাসী।

গতকাল রোববার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের অর্ন্তগত আউলিয়া বাজারের দক্ষিণ পাশ দিয়ে এ রাস্তাটি মুকুন্দপুর রেলওয়ে স্টেশনসহ পাশ^বর্তী আখাউড়া উপজেলার সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত এ সড়কটি। রাস্তা দিয়ে প্রতিনিয়ত ছোট বড় যানবাহনসহ সহ¯্র লোকের যাতাযত হয়। বিশেষ করে মুকুন্দপুর এলাকায় সীমান্তবর্তী হওয়ায় মুকুন্দপুরে বডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ক্যাম্পে যাওয়ার একমাত্র রাস্তাও এটি। এ ব্রিজের দুই পাশ ভেঙে গিয়ে মধ্যাংশটুকু ফাঁকা হয়ে আছে। প্রতিদিন স্কুল, কলেজগামী শিক্ষার্থীসহ সর্বসাধারণ হেঁটে চলাচল করছে মারাতœক ঝুঁিক নিয়ে। এছাড়াও এ রাস্তাটি দিয়ে প্রায় ৫/৭ টি গ্রামের লোকজন যাতায়াত করে থাকে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

লিজা আক্তার নামে এক স্কুল ছাত্রী বলে, ব্রিজটি ভাঙা থাকায় আমরা আমরা প্রতিদিন স্কুলে যাওয়ার সময় ভয়ে ভয়ে ব্রিজ পার হই। কখন জানি ভাঙা নিয়া পড়ে যাই।

মনে হই এখনই ভেঙে পড়বে। উপজেলার পূর্বাঞ্চল কলেজের প্রভাষক মো. কামরুল হাসান সোহাগ জানান, এ রাস্তা দিয়ে আমরা প্রায় আসা যাওয়া করি। মোটরসাইকেল নিয়ে আসা যাওয়ার সময় ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হতে হয়।

রাস্তাটি জনগুরুত্বপূর্ণ বিধায় ভাঙা ব্রিজটি শিগগিরই সংস্কার করা প্রয়োজন। এরই পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষে সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আবুল কালাম আজাদ খন্দকার জানান, আমি উপজেলা মাসিক সমন্বয় মিটিং এ বিষয়টি উপস্থাপন করেছি। পরে উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী সরেজমিনে ব্রিজটি পরিদর্শন করেছেন। শিগগিরই তা মেরামত করা হবে। উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী মো: জামাল উদ্দিনের সাথে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা অবগত আছি। ব্রিজটি নতুন করে করার জন্য আমরা কাজ করছি। প্রাথমিক অবস্থায় চলাচলের জন্য স্টিলের সিট দিয়ে মেরামত করা হবে।

"