‘চাঁদাবাজির’ প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে সমাবেশ

প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী স্থলবন্দরে ‘সিন্ডিকেটের’ বেপরোয়া চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে লালমনিরহাট-বুড়িমারী জাতীয় মহাসড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীসহ জনসাধারণ। গতকাল শনিবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত বুড়িমারী স্থলবন্দর ডাকবাংলো কার্যালয়ের সামনে এই কর্মসূচি পালিত হয়। বুড়িমারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও সিএন্ডএফ এজেন্ট ব্যবসায়ী তাহাজুল ইসলাম মিঠুর সভাপতিত্বে অবরোধ কর্মসূচী শেষে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, যুগ্ম আহবায়ক শাহীনুর আলম প্রধান, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রেজাউল করিম, বুড়িমারী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বাদশা আলমগীর প্রমূখ। প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘আন্তর্জাতিক বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি ট্রাকে চাঁদাবাজি, ট্রাকস্টান্ড দালাল অফিসের নামে চাঁদাবাজি ও শ্রমিক হ্যান্ডলিংয়ের নামে চাঁদাবাজি বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে বুড়িমারী স্থলবন্দর অনির্দিষ্টকালের জন্য অচল করে দেওয়া হবে।’ বক্তারা হুশিয়ারি উচ্চারণ করে আরও বলেন, ‘একটি জাতীয় দৈনিকে স্থানীয় সাংসদ ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতিকে জড়িয়ে মিথ্যা ও কাল্পনিক সংবাদ পরিবেশন করে ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অপচেষ্টা করছে। সংবাদকর্মীদের নিরপেক্ষ, সত্য ও সঠিক সংবাদ প্রকাশের আহŸান জানান।’

পাটগ্রাম থানার ওসি মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ‘বুড়িমারী স্থলবন্দরে পুলিশ ফোর্স পাঠিয়ে স্থানীয় আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাদের সাথে কথা বলে অবরোধ কর্মসূচী প্রত্যাহার করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।’ বুড়িমারী স্থলবন্দর কাস্টমস সহকারী কমিশনার (এসি) মোস্তাফিজুর রহমান সড়ক অবরোধের কথা স্বীকার করে বলেন, বুড়িমারী স্থলবন্দর এলাকায় অবরোধ ও প্রতিবাদ সমাবেশের কারণে প্রায় দুই ঘণ্টার মতো স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি ও পণ্যবাহী যানবাহন চলাচলে কিছুটা ব্যাঘাত ঘটে। অবশ্য পুলিশের হস্তক্ষেপে অবরোধ ও প্রতিবাদ কর্মসূচি শেষের পর পণ্যবাহী ট্রাক চলাচল স্বাভাবিক হয়।

 

"