রাজধানীর জলাবদ্ধতা নিয়ে মেয়র খোকনের ভাষ্য

৪০ বছরের সমস্যা ৪০ মাসেও সমাধান সম্ভব নয়

প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, ‘রাজধানীর ৩০-৪০ বছরের জলাবদ্ধতার সমস্যা ৩০-৪০ মাসেও সমাধান সম্ভব নয়। এর জন্য সময়ের প্রয়োজন। তবে বৃষ্টির পরে পানি যেন দ্রুততম সময়ের মধ্যে নেমে যায় আমরা সে ব্যাপারে উদ্যোগ গ্রহণ করছি। গতকাল রোববার জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী ও শোক দিবস উপলক্ষে ডিএসসিসি আয়োজিত রক্তদান কর্মসূচি উদ্বোধনের আগে সেগুনবাগিচা উচ্চ বিদ্যালয়ে মেয়র এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি ও ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফরিদ উদ্দিন আহমেদ রতনের সহযোগিতায় এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।’

জলাবদ্ধতাকে বিরাট সমস্যা উল্লেখ করে মেয়র বলেন, প্রাকৃতিক জলাধারসমূহ ভরাট করে বাড়িঘর, দোকানপাট নির্মাণ করায় পানি অপসারিত হতে পারছে না। দীর্ঘদিনের এ সমস্যা স্থায়ীভাবে দূর করতে হলে দীর্ঘমেয়াদি মাস্টারপ্ল্যান তৈরি করতে হবে এবং কোনো একক কর্তৃপক্ষের হাতে এ দায়িত্ব ন্যস্ত করতে হবে। তিনি আরো বলেন, ‘চিকুনগুনিয়া রোধে আমাদের স্বাস্থ্যকর্মীরা কাজ করছেন। প্রতি ওয়ার্ডে পাঁচজন লোক এখনো নিয়োজিত রয়েছেন। কেউ ফোন করলে আমাদের ডাক্তাররা বিনামূল্যে বাড়িতে গিয়ে চিকিৎসা দিয়ে এসেছেন। এটা এখনো অব্যাহত রয়েছে।’

ডিএসসিসির মেয়র বর্তমান সময়ের উন্নয়নের কর্মকা- তুলে ধরে বলেন, ‘দেশে প্রবৃদ্ধির হার ৭ দশমিক ২ শতাংশ, যা পৃথিবীতে দ্বিতীয়। আজ আমেরিকার ফার্মাসিগুলোয় গিয়ে দেখুন, ওষুধের গায়ে লেখা মেইড ইন বাংলাদেশ। সিঙ্গাপুরে গেলে দেখবেন, জুতার গায়ে লেখা মেইড ইন বাংলাদেশ। আর আমরা বস্ত্র রফতানিকারক হিসেবে পৃথিবীতে তৃতীয়। কাজে দেশ এগিয়ে চলছে।’

মেয়র সাঈদ বলেন, আজ বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। সারাবিশ্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। অথচ একটি মহল এ দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকুক, দেশের মানুষ ভালো থাকুক তা চায় না। তাই তারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। মেয়র সাঈদ খোকন এদের বিরুদ্ধে সতর্ক থাকা ও ঐক্যবদ্ধভাবে তাদের মোকাবিলার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু আহমেদ মান্নাফী, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রি. জে. শেখ সালাউদ্দিন, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকমন্ডলী, বঙ্গবন্ধু পরিষদ ও সেগুনবাগিচা সোসাইটির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

"