ঢাবি অধ্যাপক সাহাদাৎকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত অবৈধ

প্রকাশ : ০৯ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সাহাদাৎ হোসেনকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত অবৈধ ঘোষণা করেছেন উচ্চ আদালত। এ বিষয়ে জারি করা রুলের শুনানির পর গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি তারিক-উল হাকিম ও বিচারপতি এম ফারুকের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই রায় দেন। রায়ের পর এই শিক্ষকের আইনজীবী ব্যারিস্টার তাহসিনা তাসনিম জানান, আইন অনুযায়ী এই বরখাস্ত হয়নি। তাই আদালত বরখাস্তের আদেশকে অবৈধ ঘোষণা করেছে। ফলে ড. সাহাদাৎ হোসেনের চাকরিতে পুনর্বহালে বাধা নেই।

আদালতে রিট আবেদনকারী এই শিক্ষকের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার অনীক আর হক এবং ব্যারিস্টার তাহসিনা তাসনিম মৃদু। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আমাতুল করীম। গত বছর জুলাইয়ে মাস্টার্স পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর সমাজবিজ্ঞান বিভাগের দুই ছাত্রী অধ্যাপক সাহাদাতের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করে। চলতি বছর ৬ মার্চ তাকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দেওয়ায় ওই সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন সাহাদাৎ হোসেন। প্রাথমিক শুনানি শেষে গত ৭ জুন আদালত রুল জারি করে। রায়ের পর ব্যারিস্টার তাহসিনা সাংবাদিকদের জানান, সাহাদাৎ হোসেনকে বরখাস্ত করার আগে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে কোনো ধরনের কারণ দর্শানোর নোটিস দেয়নি। অর্থাৎ, আত্মপক্ষ সমর্থনের কোনো সুযোগ না দিয়েই তাকে বরখাস্ত করা হয়।

"