বিল্ডিং কোডের ধারা সংশোধনের আহ্বান

প্রকাশ : ০৯ আগস্ট ২০১৭, ০০:০০

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ ন্যাশনাল বিল্ডিং কোড (বিএনবিসি)-২০১৫-এর ধারাসমূহ সংশোধনের আহ্বান জানিয়েছেন ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার নেতারা। গতকাল ঢাকা ওয়াসা ভবনে বাংলাদেশ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে তারা এ আহ্বান জানান। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ঢাকা মহানগর ইমারত নির্মাণ বিধিমালা-২০০৮ সংশোধন, চাকরির প্রাথমিক নিযুক্তিতে ডিগ্রি প্রকৌশলীদের ন্যায় ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের অগ্রিম বর্ধিত বেতন প্রদান, ডিজাইন ও প্ল্যানিং-এ কর্মরত উপ-সহকারী প্রকৌশলীকে সহকারী প্রকৌশলীদের ন্যায় ৩টি অতিরিক্ত বর্ধিত বেতনের সমপরিমাণ অর্থ ব্যক্তিগত ভাতা হিসেবে প্রদান, উপ-সহকারী প্রকৌশলী/সমমানের পদ থেকে সহকারী প্রকৌশলী/সমমানের পদের পদোন্নতির কোটা ৫০ ভাগে উন্নীত করা এবং প্রাইভেট সেক্টরে কর্মরত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের প্রাথমিক নিযুক্তিতে জাতীয় বেতন স্কেলের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে ন্যূনতম বেতন স্কেল ঘোষণার দাবি জানান। 

সংগঠনের সভাপতি মো. আবদুল মান্নানের সভাপতিত্বে এ কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেন আইডিইবির সাধারণ সম্পাদক মো. শামসুর রহমান। বক্তব্য দেন সমন্বয় পরিষদের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর ডিপ্রকৌসের সাধারণ সম্পাদক মো. সিরাজুল ইসলাম, সওজ ডিপ্রকৌসের সভাপতি মো. আবদুন নুমান, ঢাকা ওয়াসা ডিইএ’র সভাপতি মো. আবদুল মান্নান, সাবেক সভাপতি মো. গিয়াস উদ্দিন, বাংলাদেশ রেলওয়ে ডিপ্রকৌসের সভাপতি দীপক কুমার ভৌমিক, সওজ ডিপ্রকৌসের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুন্তাসীর হাফিজ, বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা প্রকৌশলী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আবদুল হক, ঢাকা ওয়াসা ডিইএ’র সাধারণ সম্পাদক মো. আরমান ভূঁইয়া, রাজউক ডিপ্রকৌসের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম প্রমুখ।

পরে একটি প্রতিনিধি দল ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালকের দফতরে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি হস্তান্তর করেন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

"