চট্টগ্রামে জব্দ করা পেঁয়াজ নিলামে বিক্রি

প্রকাশ : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রামে নগরীর অক্সিজেন এলাকা থেকে গত ২ ডিসেম্বর খোলাবাজারে বিক্রির সময় জব্দ করা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) ১৭৫ কেজি পেঁয়াজ নিলামে বিক্রির সিদ্ধান্ত দিয়েছেন আদালত।

গত বুধবার বিকালে জব্দ করা পেঁয়াজ নিলামে বিক্রির বিজ্ঞপ্তি টাঙানো হয় আদালতের নোটিস বোর্ডে। নোটিসে বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টায় অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মহিউদ্দিন মুরাদের আদালতে এ নিলাম অনুষ্ঠিত হবে বলে জানানো হয়। এর আগে গত ২ ডিসেম্বর সোমবার রাতে ন্যায্যমূল্যে বিক্রির জন্য বরাদ্দ করা পেঁয়াজ খোলাবাজারে বিক্রির প্রাক্কালে অক্সিজেন মসজিদ গলি জাহাঙ্গীর স্টোরে অভিযান চালিয়ে মোট ১৭৫ কেজি পেঁয়াজ জব্দ করা হয়। এ সময় টিসিবির ডিলার দোলন বড়–য়া, দিলীপ বড়–য়া ও ট্রাকচালক এমদাদুল হক ও পেঁয়াজের ক্রেতা মোহাম্মদ জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করে বায়েজিদ থানা পুলিশ। এদিকে টিসিবির পাশাপাশি চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলমের ব্যক্তিগত উদ্যোগে আগ্রাবাদের বাদামতলী এলাকায় পেঁয়াজ বিক্রি করা হয়। দুই কেজি মাত্র ৮০ টাকা। বিভিন্ন শ্রেণির মানুষকে বড় লাইনে দাঁড়িয়ে মাত্র ৪০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ কিনতে দেখা যায়।

চম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, আমার সামর্থ্য অনুযায়ী বাজার থেকে পেঁয়াজ কিনে কম মূল্যে বিক্রি করছি। প্রথম দিন ছয়টি মিনি ট্রাকে এক টন করে তুরস্কের পেঁয়াজ দেওয়া হয়েছে। গরিব, নিম্নবিত্ত থেকে মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষের জন্য এ কার্যক্রম চলমান থাকবে। তিনি বলেন, আমি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি দোয়ার জন্য। আশা করি, বিভিন্ন করপোরেট হাউস ও ধনাঢ্য ব্যক্তিরাও এ ধরনের উদ্যোগ নেবে। বর্তমানে দেশে সবচেয়ে কম মূল্যে ৪৫ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করছে সরকারি সংস্থা টিসিবি। তবে তা প্রয়োজনে ও চাহিদার তুলনায় অপ্রতুল। খুচরা বাজারে ১১০ টাকার নিচে পেঁয়াজ নেই বললেই চলে।

 

"