রাজধানীতে শেষ হলো ৩ দিনের খাদ্যমেলা

প্রকাশ : ১৯ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘আমাদের কর্মই আমাদের ভবিষ্যৎ, পুষ্টিকর খাদ্যেই হবে আকাক্সিক্ষত ক্ষুধামুক্ত পৃথিবী’Ñ প্রতিপাদ্যে গত বুধবার রাজধানীর খামারবাড়ির কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (কেআইবি) চত্বরে শুরু হয় তিন দিনের খাদ্যমেলা। গতকাল শুক্রবার কেআইবির থ্রি-ডি হলে পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে শেষ হয় এ মেলা।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ ড. মো. আবদুল মুঈদের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (পিপিসি) ড. মো. আবদুর রৌফ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রসারণ উইং) সনৎ কুমার সাহা, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএডিসি) চেয়ারম্যান মো. সায়েদুল ইসলাম ও জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) বাংলাদেশ প্রতিনিধি মি. রবার্ট ডি. সিম্পসন। স্বাগত বক্তব্য দেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের সরেজমিন উইংয়ের পরিচালক চ-ী দাস কু-ু।

উল্লেখযোগ্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ মেলায় অংশগ্রহণকারী সরকারি-বেসরকারি আটটি প্রতিষ্ঠানকে পুরস্কার দেওয়া হয়। প্রথম পুরস্কার পায় বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি), যৌথভাবে দ্বিতীয় কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর (ডিএই), বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (ব্রি), জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) এবং যৌথভাবে তৃতীয় হয়েছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি), প্রাণিসম্পদ অধিদফতর, কৃষি বিপণন অধিদফতর ও প্রাণ গ্রুপ। এ ছাড়া মেলায় অংশগ্রহণকারী অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকেও সম্মাননা স্মারক দেওয়া হয়।

কৃষি মন্ত্রণালয় ও মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সংস্থার পদস্থসহ সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, বিভিন্ন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধি এ সময় উপস্থিত ছিলেন। কৃষি মন্ত্রণালয় ও এফএও এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। মেলায় সরকারি-বেসরকারি ৪৬টি প্রতিষ্ঠানের ৬৭টি স্টল অংশ নেয়।

"