প্রতিমা বিসর্জনকালে হত্যা করা হয় কলেজছাত্র শাওনকে

প্রকাশ : ১১ অক্টোবর ২০১৯, ০০:০০

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

ময়মনসিংহ নগরীর গোলপুকুর পাড় এলাকায় প্রতিমা বিসর্জনের প্রস্তুতিকালে ছুরিকাঘাতে শাওন ভট্টাচার্য (২০) নামে এক কলেজছাত্র নিহতের ঘটনায় প্রধান আসামিসহ সাতজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারদের মধ্যে মূল আসামি মাহফুজুল ইসলাম মাহিন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে। অন্যদিকে, শাওন হত্যার বিচারের দাবিতে শহরের জিরো পয়েন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে কলেজের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার জানান, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রতিমা বিসর্জনের প্রস্তুতিকালে নাচানাচি ও ধাক্কাধাক্কি নিয়ে আসামিদের সঙ্গে নিহত শাওনের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে গ্রেফতার মাহিন ছুরি দিয়ে শাওনকে আঘাত করে। হাসপাতালে নেওয়ার পর সে মারা যায়। ঘটনার দুই ঘণ্টার মধ্যে মূল আসামি নগরীর আরকে মিশন রোডের সেম্মত আলীর ছেলে মাহিনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার দেওয়া তথ্য মতে নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে আকাশ চন্দ্র দে, সারোয়ার উদ্দিন হৃদয়, ফারদিন, সাজ্জাদ, মুন্না ও রাকিব নামে আরো ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা সুভাশীষ ভট্টাচার্য বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো ৮ থেকে ১০ জনকে আসামি করে কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করেন। নিহত শাওন ময়মনসিংহ কমার্স কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং নগরীর ব্রাহ্মপল্লী এলাকার সুভাষ ভট্টাচার্যের ছেলে।

 

 

"