জবির ফুটপাতে অবৈধ উচ্ছেদ শিক্ষার্থীদের

প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

জবি প্রতিনিধি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) দক্ষিণ ফটক-সংলগ্ন ফুটপাতের অবৈধ লেগুনা স্ট্যান্ড ও মেরামতের দোকান উচ্ছেদ করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। সেখানে সাধারণ শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি ছাত্রলীগের অনেক কর্মীকে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়।

ফুটপাতে দোকান ও অবৈধ স্থাপনা অপসারণে ঢাকা জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। সরেজমিনে জানা যায়, দীর্ঘদিন দক্ষিণ ফটকে (সদরঘাটমুখী) এসব অবৈধ স্থাপনায় চলাচলে অসুবিধা সৃষ্টি হচ্ছিল। এসব স্থাপনা উচ্ছেদের জন্য ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীরা বেশ কয়েকবার আন্দোলন করলেও কোনো কাজ হচ্ছিল না। সর্বশেষ গত ১৫ সেপ্টেম্বর শিক্ষার্থীরা লেগুনা স্ট্যান্ড ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেন। পরদিন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ফটকটি বন্ধ করে দেয়। পরে ফের লেগুনা মালিকরা স্ট্যান্ডটি চালু করেন।

আবেদনপত্রে উল্লেখ করা হয়, শিক্ষার্থী-পথচারীদের চলাচল নিশ্চিত, বহিরাগতদের প্রভাব থেকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার পরিবেশ মুক্ত রাখা এবং ফটক-সংলগ্ন অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করার দাবি জানানো হয়।

উচ্ছেদে অংশ নেওয়া ছাত্রলীগকর্মী ১১তম ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. হামীম তালুকদার সান প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর এ বাংলায় দখলকারীর স্থান নাই। তাই আমি এ উচ্ছেদ কাজে অংশগ্রহণ করি।’ বাহাদুর শাহ পরিবহন (লেগুনা) মালিক সমিতির সভাপতি আবদুস সালাম এ বিষয়ে প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, ‘আমরা এখান থেকে লেগুনা স্ট্যান্ড সরানোর প্রস্তুতি নিচ্ছি।’ বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, ‘আগামী সাত দিনের মধ্যে আমরা সব অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে দ্বিতীয় গেট উন্মুক্ত করে দেব।’

 

"