খুলনা রেলস্টেশনে দুদকের অভিযান

প্রকাশ : ০৮ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

খুলনা (মহানগর) প্রতিনিধি

খুলনা রেল স্টেশনে ঈদের অগ্রিম টিকিট কালোবাজারে বিক্রির প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। প্রধান বুকিং সহকারী মেহেদির নেতৃত্বে একটি চক্র সার্ভারে টিকিট অটো ব্লক রেখে যাত্রীদের টিকিট সংকট দেখিয়ে পরে ব্লক করা টিকিট কালোবাজারে বিক্রি করে। একই সঙ্গে স্টেশন মাস্টার মানিক লাল সরকারের বিরুদ্ধেও রেলওয়ের অবসরপ্রাপ্ত স্টাফদের পেনশন গ্রহণ বাবদ জনপ্রতি ১০০ টাকা হারে উৎকোচ নেওয়ার প্রমাণও পেয়েছে দুদক। গতকাল বুধবার দুপুরে দুদকের অভিযানে এসব অনিয়ম-দুর্নীতি ধরা পড়ে। দুদক খুলনার উপ-পরিচালক নাজমুল আহসান খুলনা রেল স্টেশনে উল্লিখিত অনিয়ম-দুর্নীতির প্রমাণের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, খুলনা রেল স্টেশনের অভিযুক্ত প্রধান বুকিং সহকারী মেহেদির বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সেই সঙ্গে স্টেশন মাস্টার মানিক লাল সরকারের বিরুদ্ধেও রেলওয়ের অবসরপ্রাপ্ত স্টাফদের কাছ থেকে ১০০ টাকা হারে উৎকোচ নেওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এ কারণে তার বিরুদ্ধেও বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঢাকায় সুপারিশ করা হবে।

অপর সূত্র জানায়, স্টেশন মাস্টার মানিক লাল সরকারও টিকিট অটো ব্লক রেখে কালোবাজারে বিক্রির সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। এছাড়া তার বিরুদ্ধে যাত্রীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে খুলনা স্টেশনে থেকে নানা অনিয়মে যুক্ত হয়েছেন।

"