বরিশালে ৬৬ স্থানে পশুর হাট

প্রকাশ : ০৭ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

বরিশাল প্রতিনিধি

ঈদুল আজহা উপলক্ষে বরিশাল মহানগরসহ জেলার ৬৬টি স্থানে কোরবানির পশুর হাট বসছে। যার মধ্যে বেশকিছু স্থায়ী হাটে কোরবানির পশু বেচাকেনা শুরু হয়ে গেছে। তবে বেশির ভাগ হাটে পশু সরবরাহের আগ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে। আশা করা হচ্ছে, ৯ আগস্ট থেকে বরিশালের সব হাটে পুরোদমে কোরবানির পশু বেচাকেনা হবে। বরিশাল জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বরিশালের ১০ উপজেলায় এবারে মোট ৬৬টি পশুর হাটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর মধ্যে ২৫টি স্থায়ী ও ৩৫টি অস্থায়ী হাট। স্থায়ী হাটগুলোর মধ্যে বরিশাল সদর উপজেলায় একটি, বাবুগঞ্জে দুটি, বাকেরগঞ্জে ছয়টি, গৌরনদীতে দুটি, মুলাদিতে দুটি, বানারীপাড়ায় তিনটি, হিজলায় সাতটি ও মেহেন্দিগঞ্জে দুটি রয়েছে। অপরদিকে অস্থায়ী হাটের মধ্যে সদর উপজেলায় সাতটি, বাবুগঞ্জে চারটি, উজিরপুরে ছয়টি, বাকেরগঞ্জে চারটি, গৌরনদীতে একটি, আগৈলঝাড়ায় তিনটি ও মুলাদিতে ১০টি হাটের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এদিকে বরিশাল সিটি করপোরেশন সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল নগরীর পোর্টরোড কসাইখানা, বাঘিয়া আবহাওয়া অফিস সংলগ্ন সিটি করপোরেশনের দুটি স্থায়ী হাট রয়েছে। যার পাশাপাশি কোরবানির পশু বিক্রির জন্য নগরের রূপাতলীর শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত সেতুর ঢালে, কালিজিরা বাজারসংলগ্ন এলাকা, চৌমাথা থানা কাউন্সিলের বিপরীত পাশে, কাউনিয়া টেক্সটাইল মিলসংলগ্ন মাঠে একটি করে অস্থায়ী গরুর হাটের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

বিসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা বেলায়েত হাসান বাবলু বলেন, অনুমোদিত হাটগুলোতে যথানিয়মে পশু সরবরাহ করবেন ইজারাদাররা। হাটের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করাসহ সার্বিক কাজে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, প্রাণিসম্পদ অধিদফতরের সঙ্গে সিটি করপোরেশন সহযোগিতা করবে। এদিকে পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিটি হাট ইজারাদার বা পরিচালনাকারীদের নিজস্ব ভলান্টিয়ার ও বিদ্যুতের ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

 

"