এইচএসসির ফল

রাজশাহীতে এগিয়ে মেয়েরা ময়মনসিংহে কমেছে জিপিএ ৫

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড থেকে এ বছর এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় এক লাখ ৪৮ হাজার ৬৭২ পরীক্ষার্থী। এদের মধ্যে পাস করেছে ১ লাখ ১৩ হাজার ৫৫০ জন। পাসের হারে ছাত্রদের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে ছাত্রীরা। ছাত্রী পাসের হার ৮১ দশমিক ২১ শতাংশ, ছাত্র পাসের হার ৭২ দশমিক ৩২ শতাংশ। জিপিএ ৫ প্রাপ্তিতে ছাত্ররা ছাত্রীদের চেয়ে এগিয়ে। ৩ হাজার ৫৪১ জন ছাত্র এবং ৩ হাজার ১৮৮ জন ছাত্রী এবার রাজশাহী বোর্ড থেকে জিপিএ ৫ পেয়েছে। এদিকে, এইচএসসির ফলাফলে এ বছর ময়মনসিংহের সেরা কলেজগুলোতে জিপিএ-৫ এর সংখ্যা কমেছে। জেলার সেরা ১২টি কলেজ থেকে এ বছর মোট ১ হাজার ১৩৭ জন জিপিএ ৫ পেয়েছেন। প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্ট-

রাজশাহী ব্যুরো : বোর্ডে এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৭৬ দশমিক ৩৮ শতাংশ। জিপিএ ৫ পেয়েছে ৬ হাজার ৭২৯ শিক্ষার্থী। পাসের হার ও জিপিএ ৫ প্রাপ্তির দিক দিয়ে গতবারের চেয়ে বেড়েছে। গত বছর এ বোর্ডে পাসের হার ছিল ৬৬ দশমিক ৫১ শতাংশ। জিপিএ ৫ পেয়েছিল ৪ হাজার ১৩৮ শিক্ষার্থী।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের ৭৫৮টি কলেজের মধ্যে এবার শতভাগ পাস করেছে ৩৪টি কলেজের শিক্ষার্থীরা। সাতটি কলেজ থেকে কেউ পাস করতে পারেনি। গত বছর রাজশাহীতে পাসের হার ছিল ৬৬ দশমিক ৫১ শতাংশ। ২০১৭ সালে ৭১ দশমিক ৩০, ২০১৬ সালে ৭৫ দশমিক ৪০, ২০১৫ সালে ৭৭ দশমিক ৫৪, ২০১৪ সালে ৭৮ দশমিক ৫৫, এবং ২০১৩ সালে ৭৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ। বুধবার দুপুরে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আনারুল হক প্রামাণিক সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, বোর্ডে এবার মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৫১ হাজার ১৩৪ জন। উপস্থিত পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৪৮ হাজার ৬৭২ জন।

গত বছরের তুলনায় এবার সর্বোচ্চসংখ্যক শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এদের মধ্যে ১ লাখ ১৩ হাজার ৫৫০ জন শিক্ষার্থী পাস করেছে। বরাবরের মতো এবারো পাসের হারে এগিয়ে মেয়েরা। তবে জিপিএ ৫ পাওয়ায় বরাবরের মতো এগিয়ে ছেলেরা।

গতবারের তুলনা এবার কমেছে অকৃতকার্যের সংখ্যা। ২৬ হাজার ৮২৮ জন শিক্ষার্থী এবার এক বিষয়ে ফেল করেছে। মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে এর হার ১৮ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ। গত বছর ফেল করেছিল ৩৫ হাজার ৩৭ জন পরীক্ষার্থী। এ বছর ২২ জন দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী পরীক্ষায় অংশ নেয়। এর মধ্যে ১৮ জনই সাফল্যের সঙ্গে পাস করেছে। এদের মধ্যে একজন জিপিএ ৫ পেয়েছে। শারীরিক প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী ছিল ১৯ জন। এর মধ্যে পাস করেছে ১২ জন। জিপিএ ৫ পেয়েছে একজন। কারাবন্দি অবস্থায় চারজন পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছে একজন।

জিপিএ ৫ কমেছে ময়মনসিংহে : শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়মিত ক্লাস না হওয়া এবং ক্লাসে শিক্ষকদের দ্বারা পড়ার কোনো চাপ না থাকা, ইন্টারনেট, অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহারসহ নানা করণে ফলাফল খারাপ হয়েছে। ফলাফলে মেয়েরা এগিয়ে আছেন বলে শিক্ষাবিদরা অভিমত ব্যক্ত করেছেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড ঢাকার ফলাফলে জানা গেছে, এ বছর ময়মনসিংহ জেলা অন্যতম সেরা ১২টি কলেজ থেকে ১ হাজার ১৩৭ জন জিপিএ ৫ পেয়েছেন।

ময়মনসিংহ গার্লস ক্যাডেট কলেজে ৫০ জন পরীক্ষার্থীর মাঝে সবাই পাস করেছেন, তন্মধ্যে জিপিএ ৫ পেয়েছে ৪১ জন, পাসের হার শতভাগ। ময়মনসিংহ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক কলেজে ৫২৭ পরীক্ষার্থীর মাঝে পাস করেছেন ৫২৪ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৭৪ জন; পাসের হার ৯৯ দশমিক ৪৩। শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম কলেজে ১ হাজার ২৭২ পরীক্ষার্থীর মাঝে পাস করেছে ১ হাজার ২৫৮ জন; জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৩২৫ জন; পাসের হার ৯৮ দশমিক ৯০। সরকারি মুমিনুন্নিসা কলেজে ৯৯৪ পরীক্ষার্থীর মাঝে পাস করেছেন ৯৭৮ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন ২৮৯ জন, পাসের হার ৯৮ দশমিক ৩৯। সরকারি আনন্দ মোহন কলেজে ৯৯২ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছেন ৯৪৪ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন ২৪৩ জন, পাসের হার ৯৫ দশমিক ১৬। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে ৮৩২ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছেন ৮০৩ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৫৯ জন, পাসের হার ৯৬ দশমিক ৫১। নটরডেম কলেজে ১ হাজার ১৪১ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছেন ১ হাজার ৯৩ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৩৫ জন, পাসের হার ৯৫ দশমিক ৭৯। অ্যাডভান্স রেসিডেন্সিয়াল মডেল কলেজে ৪৬৯ পরীক্ষার্থীর মাঝে পাস করেছে ৪৪৪ জন জিপিএ ৫ পেয়েছেন সাতজন, পাসের হার ৯৪ দশমিক ৬৭। ফুলবাড়ীয়ার আছিম শাহাবুদ্দীন কলেজে ৭৩২ পরীক্ষার্থীর মাঝে পাস করেছেন ৬৮৮ জন জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৩৪ জন, পাসের হার ৯৩ দশমিক ৯৯। আলমগীর মুনসুর মেমোরিয়াল (মিন্টু) কলেজে ৭৫৫ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছেন ৬৭৪ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন ১১ জন, পাসের হার ৮৯ দশমিক ২৭।

শম্ভুগঞ্জ জিকেপি কলেজে ৩৪৬ পরীক্ষার্থীর মাঝে পাস করেছেন ২৯৩ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন দুজন, পাসের হার ৮৪ দশমিক ৬৮। মুসলিম গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে ৭৪৭ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছেন ৬২৫ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন ৯ জন, পাসের হার ৮৩ দশমিক ৬৭।

আকুয়ায় ময়মনসিংহ সরকারি কলেজে ৭৭৪ পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছেন ৬২৩ জন, জিপিএ ৫ পেয়েছেন আটজন, পাসের হার ৮০ দশমিক ৪৯।

 

"