চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে শিক্ষকদের অনশন

প্রকাশ : ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক
ama ami

বকেয়া বেতন পরিশোধসহ চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে অনশন কর্মসূচি পালন করছেন অতিরিক্ত শ্রেণি শিক্ষকরা (এসিটি)। ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালন করছেন তারা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা।

আন্দোলনে অংশ নেওয়া শিক্ষকরা জানান, দারিদ্র্যপীড়িত ও দুর্গম এলাকায় মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার মানোন্নয়ন, শিক্ষার্থী ঝরে পড়া কমাতে ২০১৫ সালে ইংরেজি, গণিত ও বিজ্ঞান বিষয়ে নিয়োগ দেওয়া হয় ৫ হাজার ২০০ শিক্ষক। চাকরির বিজ্ঞপ্তিতে মডেল শিক্ষক (এসিটি) হিসেবেই আখ্যা দেওয়া হয়েছিল এই শিক্ষকদের। প্রকল্প শেষে এসিটিদের এমপিও সিস্টেমে অন্তর্ভুক্তিসহ যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু প্রকল্পটি শেষ হওয়ার পর তাদের স্থায়ীকরণের মৌখিক আশ্বাস মিললেও দৃশ্যমান পদক্ষেপ পরিলক্ষিত হচ্ছে না।

তারা বলেন, ১৪ মাস ধরে বিনা বেতনে পাঠদান করে মন্ত্রণালয়ের একাধিক আশ্বাস ও প্রধানমন্ত্রীর সুপারিশের পরও চতুর্থবারের মতো তারা রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছেন। এসিটির শিক্ষকরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। বর্তমান শিক্ষাবান্ধব সরকার কাউকে ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করেনি। তাই মানবিক দৃষ্টিকোণ, বয়স বিবেচনা এবং অভিজ্ঞতার কথা চিন্তা করে সেকায়েপভুক্ত এসিটিদের বিনা শর্তে দ্রুত পরবর্তী প্রকল্পে স্থানান্তর অথবা চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি জানান তারা।

 

"