ফতুল্লায় পাওনা টাকার জন্য ব্যবসায়ীকে পুড়িয়ে হত্যা

প্রকাশ : ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মাসদাইর এলাকায় পাওনা টাকা চাওয়ায় সুমন (৩৫) নামের এক ঝুট ব্যবসায়ীকে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত সুমন মাসদাইর পাক্কার পুল এলাকার আবদুল জলিলের ছেলে। তার লাশ ঢাকা মেডিকেল হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।

সুমনের পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রতিবেশী সোহেল মন্ডল ও বিপ্লবের কাছে ৭০ হাজার করে টাকা পাওনা ছিল সুমনের। কোরবানি ঈদের সময় বিপ্লব ও সোহেল সুমনের কাছে পাওনা পরিশোধের অঙ্গীকার করে। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় একটি ফোন পেয়ে বাসা থেকে বের হয়ে যায় সুমন। যাওয়ার সময় তার মাকে জানিয়ে যায় পাওনা টাকা আনতে বিপ্লবের কাছে যাচ্ছে সে। তার কিছুক্ষণ পরই সুমনের পরিবার জানতে পারে সুমনের গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে কে বা কারা। পরে সুমনকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া হলে গতকাল শনিবার চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুমনের মৃত্যু হয়। মৃত্যুর আগে সুমন তার পরিবারের সদস্যদের কাছে ঘটনার বর্ণনা দিয়েছে বলে জানিয়ে তার পরিবার।

ঘটনার বর্ণনায় সুমনের বোন রীতা বলেন, এই হত্যার সঙ্গে বিপ্লব, তার স্ত্রী শায়লা, সুমন মন্ডল ও হোটেল মাসুদ জড়িত। সুমন তার পাওনা টাকা আনতে গেলে শায়লা, মাসুদ ও সুমন তাকে আটকে ফেলে এবং বিপ্লব সুমনের গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন দেয়। ঘটনার পর থেকেই এই চারজন পলাতক রয়েছে।

ফতুল্লা থানার ওসি মঞ্জুর কাদের বলেন, এ বিষয়ে এখনো পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ করেনি মামলাও হয়নি।

 

"