হাতিরঝিল থানার যাত্রা শুরু

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ৫০তম থানা হিসেবে হাতিরঝিল থানার যাত্রা শুরু হলো। গতকাল শনিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় ফিতা কেটে ও পায়রা উড়িয়ে থানার উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দীন, পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. জাবেদ পাটোয়ারী, র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ, ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, অতিরিক্ত কমিশনার ও কাউন্টার টেররিজম প্রধান মনিরুল ইসলাম, কৃঞ্চপদ রায়, যুগ্ম কমিশনার (ডিবি) শেখ নাজমুল ইসলাম, তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার, উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমানসহ পুলিশের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তারা।

ডিএমপি জানিয়েছে, রাজধানীর তেজগাঁও, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল, রমনা, রামপুরা, গুলশান এবং বাড্ডাÑ এই ৭ থানার অন্তর্ভুক্ত ছিল হাতিরঝিলের প্রায় ১৬ কিলোমিটার সড়কটি। সড়কে কোনো দুর্ঘটনা হলেই পরিমাপের ফিতা নিয়ে হাজির হতেন পুলিশ কর্মকর্তারা। দীর্ঘ সময় লাগত থানার সীমানা শনাক্ত করতে। এসব সমস্যার সমাধানে দীর্ঘদিন ধরে হাতিরঝিলকে আলাদা থানায় আওতাভুক্তির প্রস্তাব দেন অনেকে। অবশেষে গতকাল ডিএমপির ৫০তম থানা হিসেবে যাত্রা শুরু করল ‘হাতিরঝিল থানা’।

হাতিরঝিল থানার অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে, বাংলামোটরের একাংশ, ইস্কাটনের একাংশ, মগবাজার, মালিবাগ চৌধুরীপাড়ার একাংশ, পশ্চিম রামপুরা, উলন, নয়াটোলা, মধুবাগ, মীরবাগ, মহানগর আবাসিক এলাকা, হাতিরঝিল-বাডডা লিংক রোড, আবুল হোসেন রোড, ওয়াপদা রোড, ওয়্যারলেস মোড়ের একাংশ, পেয়ারাবাগ, দিলু রোড, মালিবাগ রেলক্রসিং, হাজিপাড়া, হোটেল সোনারগাঁও, হাতিরঝিল প্রজেক্ট ও পুলিশ প্লাজা এলাকার একাংশ।

নতুন এ থানাটি পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের আওতাভুক্ত। এই বিভাগের উপ-কমিশনারের দায়িত্ব পালন করছেন বিপ্লব কুমার সরকার। তিনি জানান, নতুন থানার ওসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন আবু মো. ফজলুল করিম, পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ইকবাল হোসেন ও পরিদর্শক (অপারেশন) হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন এস কে খোদা নেওয়াজ। ২০১৭ সালের ২০ নভেম্বর হাতিরঝিলে নতুন থানা স্থাপনের অনুমোদন দেয় প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস-সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি (নিকার)।

"