সুন্দরবনের নিরাপত্তায়

কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ঈদের ছুটি বাতিল

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০১৮, ০০:০০

খুলনা প্রতিনিধি

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সুন্দরবনের নিরাপত্তা, হরিণ শিকার, অবৈধভাবে গাছ কাটা এবং জেলেদের কাছ থেকে বনদস্যুদের চাঁদা আদায় বন্ধে বনবিভাগের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ঈদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। বনজ সম্পদ রক্ষায় নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা । এ ছাড়া এখন থেকে শুরু করে ঈদের পরও বনবিভাগের বিশেষ টিম স্মার্ট বাহিনী সুন্দরবন এলাকায় সার্বক্ষণিক প্যাট্রল অব্যাহত রাখবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বনবিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সুন্দরবনের হরিণ শিকার, অবৈধভাবে গাছ কাটা এবং জেলেদের কাছ থেকে বনদস্যুদের চাঁদা আদায় বন্ধে ৫ জুন খুলনা রেঞ্জ কর্মকর্তার কার্যালয়ে এক জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বিশেষ বিশেষ টিম গঠন করে টহল জোরদারসহ প্রতিটি স্টেশন কর্মকর্তার সমন্বয়ে টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

খুলনা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) এস এম শোয়াইব খানের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন বানিয়াখালি স্টেশন কর্মকর্তা মো. ওবাইদুল্যাহ, কাশিয়াবাদ স্টেশন কর্মকর্তা মো. সুলতান মাহমুদ টিটু, কালাবগি স্টেশন কর্মকর্তা শ্যামা প্রসাদ রায়, নলিয়ান স্টেশন কর্মকর্তা মো. মকরুল হোসেন আকন, সুতারখালি স্টেশন কর্মকর্তা শফিউর রহমান, হডডা টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুস ছাত্তার, বজবজা টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম, খাশিটানা টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান, শাকবাড়িয়া টহল ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খান মিজানুর রহমানসহ বিভিন্ন টহল ফাঁড়ির কর্মরত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ঈদ সামনে রেখে সুন্দরবনে একশ্রেণির চোরাকারবারি সুযোগ কাজে লাগিয়ে সুন্দরবনের কাঠ পাচার করে আর্থিক ফায়দা লুটে থাকে। এ ছাড়া একশ্রেণির অসাধু শিকারি চক্র মায়াবী হরিণ নিধনযজ্ঞে মেতে ওঠে। এ বছর এ সুযোগ যাতে কাজে না লাগাতে পারে সেদিকে লক্ষ রেখে কঠোর নিরাপত্তাবলয় গড়ে তোলা এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিলসহ বিভিন্ন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। খুলনা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো. শোইয়েব খান বলেন, টহল কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ইতোমধ্যে ঈদুল ফিতর সামনে রেখে বিভিন্ন স্টেশন ও টহল ফাঁড়িতে কর্মরত বনবিভাগের স্টাফদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। তাছাড়া বিশেষ টিমের পাশাপাশি রাত-দিন বিভিন্ন স্টেশন ও টহল ফাঁড়ির সমন্বয়ে গঠিত টিম সুন্দরবনের বিভিন্ন এলাকায় টহল কার্যক্রম চালানো হবে।

সুন্দরবন পশ্চিম বনবিভাগের ডিএফও মো. বশিরুল আল মামুন বলেন, সুন্দরবনের নিরাপত্তা বজায় রাখতে বনবিভাগের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ঈদের ছুটি ইতোমধ্যে বাতিল করা হয়েছে। এ ছাড়া তিনি নিজেও টহল কার্যক্রম চালাবেন।

"