অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিবাদ

খুলনার পাটকলগুলোতে মৌন মিছিল ও মানববন্ধন

প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

খুলনা প্রতিনিধি
ama ami

অর্থমন্ত্রী বিজেএমসিকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করায় অর্থমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্য প্রত্যাহার ও পাটশিল্পকে কৃষিভিত্তিক শিল্প হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করার দাবিতে খুলনার রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকলগুলোতে মৌন মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল ১০টায় খুলনার খালিশপুর, ক্রিসেন্ট, প্লাটিনাম, দৌলতপুর জুট মিলে, দিঘলিয়ার স্টার, আটরা শিল্প এলাকার আলিম, ইস্টার্ন নওয়াপাড়া শিল্প এলাকার কার্পেটিং ও জেজেআই জুট মিলে এক যোগে মৌন মিছিল এবং মানববন্ধন পালন করে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

গত ৮ মার্চ অর্থমন্ত্রী সরকারের লোকসানি প্রতিষ্ঠান বিজেএমসিকে একেবারে বন্ধ করে দেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন। অর্থমন্ত্রীর দেয়া এ বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, পাট শিল্প দেশের বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের তৃতীয়তম খাত। বিজেএমসির মাধ্যমে পাটপণ্য রফতানি করে জাতীয় অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজেএমসিকে জাতীয়করণ করেছিলেন। ঐতিহাসিক ৬ দফা দাবির মাধ্যমে পাট খাতকে উন্নয়নমুখী ও সংরক্ষণে জোরালো ভূমিকা রেখেছিলেন। বিজেএমসির খুলনা জোনের সমন্বয়কারী গাজী শাহাদৎ হোসেনের সভাপতিত্বে প্লাটিনাম জুবিলী জুট মিলের মানববন্ধনে বক্তব্য দেন ক্রিসেন্ট জুট মিলের প্রকল্প প্রধান আবুল কালাম হাজারী, প্লাটিনাম জুট মিলের প্রকল্প প্রধান মো. শাহজাহন, স্টার মিলের প্রকল্প প্রধান ফজলুর রশিদ বাবু, খালিশপুর জুট মিলের মো. শফিকুল ইসলাম, দৌলতপুর জুট মিলের প্রকল্প প্রধান মো. সাজ্জাদ হোসেন, খালিশপুর জুট মিলের ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মো. মোস্তফা কামাল। এছাড়াও বক্তব্য দেন মো. মহাসিন, সরদার সুলতান আহমেদ, আ. রশিদ, সুলতান মাহমুদ মন্ডল, মো. শরিফুল ইসলাম, মোছা. ফেরদোসী, আলমগীর হোসেন, ফেরদৌস আলম খান, ক্রিসেন্ট জুট মিলের আহমদ হোসাইন, শাওন মাহমুদ প্রমুখউপস্থিত ছিলেন।

"