‘কর্ণফুলী নদীর তীরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ শিগগিরই’

প্রকাশ : ১১ মার্চ ২০১৮, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীর দুই তীরের অবৈধ স্থাপনা শিগগিরই উচ্ছেদের ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন চট্টগ্রামের নতুন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন। গতকাল শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে জেলার সার্বিক উন্নয়ন বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ে তিনি এ আশ্বাস দেন।

এর আগে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করা মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেন, অতীতে এখানে দায়িত্ব পালনকালে কর্ণফুলীর দুই তীরে দুই হাজার ২১২টি অবৈধ স্থাপনা চিহ্নিত করেছিলাম। কিছু সরকারি ও জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা বাদে বাকিগুলো উচ্ছেদের অনুমতি দিয়েছেন হাই কোর্ট। আমি সরকারের উচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগ করব। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব উচ্ছেদের ব্যবস্থা করব।

সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড যথাযথভাবে প্রচারে গণমাধ্যমকর্মীদের বিগত দিনের তৎপরতার প্রশংসা করে জেলা প্রশাসক বলেন, প্রশাসন এবং গণমাধ্যম পরস্পর সহযোগী। আপনাদের সহযোগিতা না পেলে প্রশাসনের বড় সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন অসম্ভব।

জেলা প্রশাসক গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, চট্টগ্রামের দুঃখ চাক্তাইখাল, কর্ণফুলীর তীরে অবৈধ দখল উচ্ছেদ, হালদা রক্ষা, পাহাড় ব্যবস্থাপনা, নগরের যানজট, জলাবদ্ধতা নিরসনসহ সরকারের গৃহীত সকল প্রকল্পে জেলা প্রশাসন উন্নয়ন সংস্থাগুলোর সাথে সমন্বিত কাজ করবে। সাংবাদিকদের পেশাগত দায়িত্বপালনকালে নিরাপত্তা ও যুব সমাজকে মাদকের হাত থেকে রক্ষা করতে প্রশাসনের সার্বিক সহায়তা কামনা করেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। পরে জেলা প্রশাসক সরকারের ভিশন ২০৩০ এবং ২০৪১ সফল করতে গৃহীত পদক্ষেপসমূহ ব্যাপক প্রচারের সহায়তা কামনা করে মতবিনিময় সভা শেষ করেন।

"