ঈদ উদ্‌যাপন

রাজশাহী জেলা প্রশাসনের ব্যাপক প্রস্তুতি

প্রকাশ : ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | আপডেট : ০৩ জুন ২০১৯, ০২:৪৭

রাজশাহী ব্যুরো

রাজশাহীতে ঈদুল ফিতরের প্রধান জামাত সকাল ৮টায় মহানগরীর ঐতিহ্যবাহী হজরত শাহ মখদুম (রহ.) কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। তবে বৈরী আবহাওয়া হলে একই সময় হজরত শাহ মখদুম (রহ.) দরগা মসজিদে আয়োজন করা হবে প্রধান জামাতের। আর ঈদ আনন্দ উপভোগ করতে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে ঈদের জামাতকে ঘিরে থাকবে কঠোর নিরাপত্তা।

এ তথ্য নিশ্চিত করে গতকাল রোববার দুপুরে রাজশাহী জেলা প্রশাসক (ডিসি) এস এম আবদুল কাদের জানান, ‘আনন্দমুখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে ঈদুল ফিতর উদ্যাপনের লক্ষ্যে এবারও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। ঈদের প্রধান জামাত আয়োজন ছাড়াও বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে। এ কর্মসূচি সফলভাবে বাস্তবায়নের লক্ষে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সব ইউনিটকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।’

এদিকে জেলা প্রশাসনের কর্মসূচি অনুযায়ী ঈদের দিন সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সরকারি, আধা-সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত ও বেসরকারি ভবনগুলোতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং সরকারি ভবন ও সড়কদ্বীপগুলো সজ্জিত করা হবে। ঈদের দিন সকাল থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কেন্দ্রীয় কারাগার, এতিমখানা, শিশুকেন্দ্র, শিশু পরিবার, শিশু পল্লী, শিশু সদন, ছোটমণি নিবাস, সেফ হোমসহ অনুরূপ প্রতিষ্ঠানগুলোতে বিশেষ খাবার পরিবেশন করা হবে। বাদ মাগরিব লক্ষ্মীপুর মোড় ও পদ্মাপাড়ের লালন শাহ মঞ্চে চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হবে। রাতে বিভিন্ন সরকারি ভবনে শোভা পাবে আলোকসজ্জা।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র অতিরিক্ত উপকমিশনার (সদর) গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, ‘নিরাপদ ও নির্বিঘ্নে ঈদ উদ্যাপনের লক্ষ্যে মহানগর জুড়ে বিশেষ নিরাপত্তার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। জনসচেতনতায় জারি করা হয়েছে গণবিজ্ঞপ্তি। বিশেষ করে ঈদের জামাতকে ঘিরে কঠোর নিরাপত্তা থাকবে। পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাবের টহলও থাকবে।’