ভারতে প্রজাতন্ত্র দিবস

ভারতে প্রজাতন্ত্র দিবস উদযাপিত হচ্ছে ১৯৫০ সাল থেকে

প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

ভারত স্বাধীনতা অর্জন করে ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্ট। দেশটির খসড়া সংবিধানকার্যে পরিণত হয় ১৯৫০ সালের ২৬ জানুয়ারি। এই দিনটি স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব, ধর্মনিরপেক্ষতা ও গণতান্ত্রিক ভারতবর্ষের প্রতীক। এটি ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস হিসেবে স্বীকৃত।

প্রজাতন্ত্র দিবস সম্পর্কে

১৯৫০ সালের ২৬ জানুয়ারি থেকে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস পালিত হয়ে আসছে। ভারতের গণতন্ত্রের ইতিহাসে এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ দিন। ১৯৫০ সালের ২৬ জানুয়ারি বিশ্বের সর্বাপেক্ষা বৃহৎ সংবিধান ভারতে কার্যকর হয়। তখন থেকে ভারত একটি প্রজাতন্ত্রÑ ‘জনগণের দ্বারা, জনগণের জন্য’। এই সংবিধানে জনগণের স্বাধীন অধিকার নিশ্চিত করা হয়েছে এবং প্রস্তাবনার আলোকে কর্তব্য নির্ধারণ করা আছে।

প্রজাতন্ত্র দিবস পালন

ভারতে প্রজাতন্ত্র দিবস সরকারি ছুটির দিন। এই দিনে রাজধানী দিল্লিতে প্রজাতন্ত্র দিবসের আড়ম্বরপূর্ণ প্রজাতন্ত্র দিবস প্যারেড অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তিন ঘণ্টাব্যাপী আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে পুরো ভারতবর্ষ অংশগ্রহণ করে। এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ভারতের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী। বিশেষ অতিথি থাকেন অন্য কোনো দেশের সরকার বা রাষ্ট্রপ্রধান। রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে শুরু হয়ে রাজপথ অতিক্রম করে এই প্যারেড শহরের অন্য অংশে সম্প্রসারিত হয়। সেনা, বিমান ও নৌবাহিনীসহ ভারতের অন্যান্য প্রতিরক্ষাবাহিনী ও সামরিক বাহিনীর সদস্যরা স্বাধীনতাযুদ্ধের বীর সেনানী মঞ্চে উপবিষ্ট ব্যক্তিত্বদের সালম প্রদান করে। প্রজাতন্ত্র দিবসের অন্যতম আকর্ষণ নতুন দিল্লিতে অশ্বারোহী বাহিনীর মার্চপাস্ট। অনুষ্ঠানে ন্যাশনাল ক্যাডেট কোর এবং বয় স্কাউটের সদস্যরাও অংশগ্রহণ করে। এ ছাড়া জাতীয় জীবনে সাহসিকতা ও অনন্য সাধারণ ভূমিকা পালনের জন্য বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সম্মানিত করা হয়। প্যারেডের শেষপর্যায়ে থাকে ভারতবর্ষের বিভিন্ন অঞ্চলের শিল্পী ও কলাকুশলীদের নৃত্য, দেশাত্মোবোধক গান, মোটরবাইক প্রদর্শনী। ভারত সফরে আসা পর্যটকদের জন্য প্রজাতন্ত্র দিবসের অনুষ্ঠান উপভোগ করা বেশ আনন্দদায়ক হয়।

"