সাকিব-রুবেলের জন্য অপেক্ষা

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৭, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

অস্ট্রেলিয়া ও সাউথ আফ্রিকা সিরিজ সামনে রেখে মিরপুরে চলছে জাতীয় দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্প। সামনে ব্যস্ত সূচি, ফিটনেস বাড়িয়ে নেওয়ার মোক্ষম সময় এটাই। মাশরাফি-মুশফিকরা সবাই এখন ব্যস্ত নিজেদের প্রস্তুত করতে। তবে আপাতত সেই সুযোগ পাচ্ছেন না সাকিব আল হাসান এবং পেসার রুবেল হোসেন। ইনজুরির কারণে দুজনই আপাতত ক্যাম্পে থাকতে পারছেন না।

হঠাৎ চোট পাওয়ার পর এখনো পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠেননি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। পূর্ণভাবে সেরে উঠতে এখনো ১০ দিনের মতো লাগতে পারে। তবে চোটের অবস্থা যাই হোক হলেও গতকালকেই আংশিক অনুশীলনে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান। অন্যদিকে এখনো না ফিরলেও দ্রুতই ফেরার পথে আছেন পেসার রুবেল হোসেন। সোমবার মিরপুরে শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির সহকারী চিকিৎসক মইনুল আমিন।

গত শনিবার সিঁড়িতে উঠতে গিয়ে বাম পা মচকে যায় সাকিবের। তাতে গোড়ালিতে ব্যথা পান। চোট গুরুতর না হলেও তার গোড়ালিতে ব্যান্ডেজ বেঁধে দিয়েছিলেন বিসিবি চিকিৎসক। ৪৮ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণ শেষে গতকাল অনুশীলনে ফিরেছেন সাকিব। অবশ্য মাঠে ফিরতে আরো সময় লাগবে তার। আপাতত জিমনেশিয়ামে সাইক্লিং করে কাটিয়েছেন বিশ্বের সেরা এই অলরাউন্ডার। তবে পুরোপুরি সুস্থ হতে আরো ১০ দিন লাগবে বলে জানালেন বিসিবির সহকারী চিকিৎসক মইনুল আমিন, ‘সাকিব বাম পায়ের গোড়ালিতে ব্যথা পেয়েছেন। ওখানে দু-একটা লিগামেন্টে ইনজুরি হয়েছে। যেটা গ্রেড ওয়ান মাত্রার। তবে খুবই সাধারণ ইনজুরি। তাই আমরা তাকে রিহ্যাব প্রোগ্রামে রেখেছি। গত দুদিনে অনেক উন্নতি হয়েছে, ফুলে যাওয়া কমে গেছে।’

এই চিকিৎসক আরো জানিয়েছেন, দু-এক দিনের মধ্যে সাকিব পুরোপুরি ওয়ার্মআপ (আপার বডি এক্সারসাইজ এবং লোয়ার বডি সাইক্লিং) শুরু করবেন। এদিকে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি শেষে দেশে ফেরার আগের দিন টিম হোটেলের দরজায় ধাক্কা লেগে মুখে চোট পেয়েছিলেন রুবেল। সুস্থ না হওয়াতে গত সোমবারও জাতীয় দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্পে যোগ দিতে পারেননি তিনি।

গত ২১ জুন মিরপুরের ডেলটা হাসপাতালে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে তার সফল অস্ত্রোপচার হয়েছিল। এরপর বলা হয়েছিল অস্ত্রোপচারের পর অন্তত চার সপ্তাহ বিশ্রামে থাকতে। চলতি সপ্তাহেই সেই সময়সীমা শেষ হচ্ছে। তাই অনুশীলনে ফিরতে পারবেন রুবেল। তবে পুরোপুরি ফিট হয়ে ফিরতে সময় লেগে যেতে পারে পাঁচ আগস্ট। বিসিবির সহকারী চিকিৎসক আরো জানালেন, ‘শিগগিরই পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু করবেন রুবেল। এর দুই সপ্তাহ পর শুরু হবে ট্রেনিং প্রোগ্রাম। আশা করছি, আগামী ৫ আগস্ট থেকে রুবেল ট্রেনিং শুরু করতে পারবে।’

এদিকে ১০ জুলাই থেকে স্ট্রেন্থ ও কন্ডিশনিং কোচ মারিও ভিল্লাভারায়নের অধীনে মিরপুরে চলছে ফিটনেস ক্যাম্প। চলবে ২৮ জুলাই পর্যন্ত। তার আগেই অবশ্য বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশের অধীনে বিশেষ পেস বোলিং ক্যাম্প করতে যাচ্ছে বিসিবি। সেখানেও থাকা হবে না রুবেলের। সেজন্য আক্ষেপ ঝড়ল এই পেসারের কণ্ঠে, ‘থাকতে পারলে ভালো হতো। এখন ইনজুরিতে তো কারো হাতে নেই।’

"