টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে অনিশ্চয়তা

প্রকাশ : ১৯ জুন ২০১৭, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

পরপর তিন বছর আইসিসির তিনটি ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। গতকাল শেষ হয়ে গেল আইসিসির মিনি বিশ্বকাপ খ্যাত চ্যাম্পিয়নস ট্রফি। এরপর ২০১৮ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০১৯ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপ। কিন্তু আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম পর্বের খেলা ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও জানা গেছে তা আর হচ্ছে না। পিছিয়ে যাচ্ছে আরো দুই বছরের জন্য। ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। এর কারণ হিসেবে জানা গেছে আগামী দুই বছর বিশ্বের সেরা ক্রিকেট খেলিয়ে দেশগুলোর অনেকেই ব্যস্ত থাকবে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে। যে কারণে পিছিয়ে দেওয়া হলো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময়। আইসিসি সূত্রের খবর হলেও সরকারিভাবে কিছু ঘোষণা করা হয়নি এখনো। যদিও ভেন্যু এখনো কিছু নির্ধারিত হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। নাম না করে সেই সূত্র জানিয়েছেন, এটা সত্যি ২০১৮ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হচ্ছে না। এখনো কোনো ভেন্যুও নির্ধারিত হয়নি। মূল কারণ আগামী দুই বছরে আইসিসির সদস্য দেশগুলোর মধ্যে অনেক দ্বিপাক্ষিক সিরিজ রয়েছে। তবে যদি সব ঠিক থাকে তা হলে ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত হবে এই টুর্নামেন্ট।

২০২০ সালের জন্য এখনো কোনো ভেন্যু তৈরি না হলেও সব থেকে বেশি হওয়ার সম্ভাবনা দক্ষিণ আফ্রিকা অথবা অস্ট্রেলিয়ায়। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ ছাড়াও আইসিসির আরো বেশ কিছু ইভেন্ট রয়েছে সেই সময়ে। এর আগে শেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হয়েছিল ভারতে ২০১৬ সালে। তার আগে দক্ষিণ আফ্রিকা (২০০৭), ইংল্যান্ড (২০০৯), ওয়েস্ট ইন্ডিজ (২০১০), শ্রীলঙ্কা (২০১২) ও বাংলাদেশ (২০১৪)-এও এই ইভেন্ট আয়োজনের দায়িত্ব পালন করেছে অতীতে। তাই অস্ট্রেলিয়ার সুযোগ আসতে পারে। গত বছর ভারতও একাধিক সিরিজ খেলবে। প্রথমে দক্ষিণ আফ্রিকা তার পর অ্যাওয়ে সিরিজে ভারত খেলবে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে। এখনো পর্যন্ত পরবর্তী চ্যাম্পিয়নস ট্রফি হওয়ার কথা ২০২১ সালে।

"