কঠিন ম্যাচের প্রত্যাশা ছিল কোহলির

প্রকাশ : ১৭ জুন ২০১৭, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

সেমিফাইনালের আগে বাংলাদেশকে ভয়ংকর দল বলেছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। কিন্তু মূল লড়াইয়ে ভারতকে তেমন পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি মাশরাফিবাহিনী। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে বাংলাদেশের বিপক্ষে ২৬৫ রানের টার্গেট পেয়েছিল ভারত। সেটা তারা পূরণ করেছে মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে। ৯ উইকেটের বিশাল জয়ের পর অবাক বিরাট কোহলি! বাংলাদেশি বোলারদের কাছ থেকে এত সহজে পার পেয়ে যাওয়ার প্রত্যাশা করেননি ভারত অধিনায়ক।

ম্যাচের আগে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশকে বিপজ্জনক দল মনে করা কোহলি প্রতিপক্ষের কাছ থেকে প্রত্যাশিত লড়াই না দেখে বিস্মিত হয়েছেন। ভারতের সহজ জয়ের পর ভারতীয় অধিনায়ক বলেছেন, ‘সত্যি বলছি, আমরা ৯ উইকেটে জয় কখনো প্রত্যাশা করিনি। কিন্তু আমাদের গুণগত টপ অর্ডার আছে। টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা আমাদের দারুণ শুরু এনে দিয়েছে। এটা আমাকে স্বাভাবিক খেলা খেলতে সহায়তা করেছে।’ ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে কেদার যাদবের দুর্দান্ত বোলিংকে কৃতিত্ব দিলেন কোহলি, ‘বল হাতে আমরা তাদের খুব বেশি স্বাচ্ছন্দ্যে থাকতে দিইনি। দ্রুত দুই উইকেট তুলে নিয়ে আমরা তাদের সুন্দর মুহূর্তটা নষ্ট করে দিয়েছি।’ তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিমের ১২৩ রানের জুটি ভাঙা কেদারের প্রশংসা করেছেন ভারতের অধিনায়ক, ‘সে দারুণ বল করেছে। সে জানে কোথায় বল ফেলতে হবে। যদি ওই দুজন ব্যাট করে যেত তাহলে আমাদের ৩০০-এর ওপর রান তাড়া করতে হতো।’

শুধু কেদার যাদব নন, কাজে লেগেছে ভুবনেশ্বর কুমার, জাস্প্রিত বুমরার স্পেলও। এই দুই বোলারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ বিরাট। বলেন, ‘ওরা অসাধারণ। বিশেষ করে শেষ দুটো ম্যাচে ওরা যেভাবে খেলল। ম্যাচের শেষের দিকে ওরা খুব কার্যকরী। সঙ্গে ওদের উইকেট নেওয়ার ক্ষমতা।’

"