অনুশীলনে আসতে শিষ্যদের জোর করবেন না ক্লপ

প্রকাশ : ২২ মে ২০২০, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

ফুটবল ফেরানোর প্রাথমিক প্রস্তুতি হিসেবে ছোট ছোট দলে বিভক্ত হয়ে অনুশীলন শুরু করেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ক্লাবগুলো। তবে দলের কোনো ফুটবলার অনুশীলনে ফিরতে নিরাপদ বোধ না করলে তাকে জোর করা হবে না বলে জানিয়েছেন লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে গেল ১৩ মার্চ থেকে স্থগিত হয়ে আছে প্রিমিয়ার লিগের ২০১৯-২০ আসর। তবে ইংল্যান্ডের পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হওয়ায় আগামী জুনের মাঝামাঝি সময় থেকে খেলা শুরু হওয়ার সম্ভাবনা জেগেছে।

প্রায় আড়াই মাসের বিরতির পর পরশু নিজেদের ট্রেনিং গ্রাউন্ড মেলউডে অনুশীলনে নেমেছে প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে থাকা লিভারপুল। সেদিন তিনটি সেশনে শিষ্যদের সঙ্গে কাজ করেছেন ক্লপ। প্রতিটি সেশনে উপস্থিত ছিলেন দশ জন করে খেলোয়াড়। তারা পাঁচ জনের দুটি দলে ভাগ হয়ে আলাদা আলাদা পিচে অনুশীলন করেছেন।

প্রথম সেশন শেষে ক্লপ ব্রিটিশ গণমাধ্যম স্কাই স্পোর্টসকে জানান, অনুশীলনে অংশ নেওয়া-না নেওয়ার সিদ্ধান্তের বিষয়ে খেলোয়াড়দের পূর্ণ স্বাধীনতা রয়েছে, ‘এটা তাদের ব্যক্তিগত পছন্দের ব্যাপার। সুতরাং বিষয়টা পরিষ্কার। আমি সেশন শুরুর আগে খেলোয়াড়দের বলেছি, সবাই এখানে নিজের ইচ্ছায় এসেছ। সাধারণত তোমরা একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করো এবং তারপর আমি যখনই ডাক দেই, তখনই তোমাদের উপস্থিত হতে হয়। তবে এক্ষেত্রে (স্বাস্থ্য ঝুঁকির আশঙ্কায়) কেউ যদি নিরাপদ বোধ না করে, তবে তাকে এখানে (অনুশীলনে) আসতে হবে না। এক্ষেত্রে কোনো বিধিনিষেধ নেই, কোনো শাস্তি নেই, কিছুই নেই। সুতরাং এটি (অনুশীলনে অংশ নেওয়া-না নেওয়া) খেলোয়াড়দের নিজস্ব সিদ্ধান্ত। এটিকে আমরা শতভাগ সম্মান করব।’

লিগ বন্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত শীর্ষে থাকা লিভারপুল নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার সিটির চেয়ে ২৫ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে আছে। ১৯৯০ সালের পর প্রথমবারের মতো ইংল্যান্ডের পেশাদার ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরের শিরোপা জয়ের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে দলটি।

 

"