আইসিসির সতর্কবার্তা

লকডাউনের মাঝেই জুয়াড়িদের আনাগোনা

প্রকাশ : ২০ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে যে যার বাড়িতেই অলস সময় কাটাচ্ছেন ক্রীড়াবিদরা। তবে ক্রিকেটাররা বাড়িতে বসে থাকলেও থেমে নেই জুয়াড়িরা। লকডাউনের মাঝেই চলছে তাদের আনাগোনা। আইসিসি তাই ক্রিকেটারদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছে।

খেলা না থাকায় ক্রিকেটাররা এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক বেশি সক্রিয়। লোকজনকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানাচ্ছেন, দিচ্ছেন নানান বার্তা, দেখে নিচ্ছেন বিশ্বের সর্বশেষ খবরাখবর, দেখছেন পুরনো খেলার ভিডিও। ক্রিকেটারদের সামাজিক মাধ্যমে সক্রিয় থাকাকে কাজে লাগিয়ে তাদের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারে জুয়াড়িরা। এমনই মনে করছে আইসিসি। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থার দুর্নীতি দমন শাখার প্রধান অ্যালেক্স মার্শাল বলেছেন, ‘আমরা দেখছি যারা দুর্নীতির জগতে পরিচিত তারা এই সময়কে কাজে লাগাতে নেমে পড়েছে। এখনই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সবচেয়ে বেশি উপস্থিত থাকছেন ক্রিকেটাররা। এর ফলে তাদের সঙ্গে যোগাযোগের মাধ্যমে সম্পর্ক গড়ে তোলার সুযোগ কাজে লাগাতে চাইবে ওরা।’

অ্যালেক্স মার্শাল মতে, বিশ্বজুড়ে ক্রিকেট বন্ধ থাকলেও ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব নাও কমতে পারে। বরং খেলা শুরু হলে ক্রিকেটাররা যাতে ম্যাচ পাতাতে পারে সেই চেষ্টাই করবে তারা, ‘করোনার প্রাদুর্ভাবে আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেট বন্ধ। কিন্তু দুর্নীতিবাজরা সক্রিয়ই আছে। আমরা তাই সকল বোর্ড, ক্রিকেটার ও বৃহত্তর নেটওয়ার্ককে এই ব্যাপারে সতর্ক করেছি। সবাই যাতে এই প্রস্তাবের বিপদ সম্পর্কে সচেতন থাকেন, তা নিশ্চিত করতে চাইছি।’ আইসিসির অবশ্য আরেকটি যুক্তি দিয়েছে। ক্রিকেট না থাকায় ক্রিকেটাররা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। খেলা শুরু হলে ক্রিকেটাররা মোটা অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার ফাঁদে পড়ে বিপথে পা বাড়াতে পারেন। অর্থ আয়ের খাতিরেই তারা জুয়াড়িদের প্রস্তাবে সাড়া দিতে পারেন, এমন আশঙ্কা করছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এ কারণে আগেভাগেই সবাইকে সতর্ক করে দিল আইসিসি।

 

"