একসঙ্গে ৬ পরিচালকের পদত্যাগ

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

ফুটবল সংশ্লিষ্ট নয় এমন ঘটনার কারণে সম্প্রতি বেশ কয়েকবার খবরের শিরোনাম হওয়া বার্সেলোনায় এবার তৈরি হয়েছে নতুন জটিলতা। ২০১৫ সাল থেকে সভাপতির দায়িত্বে থাকা জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউয়ের সঙ্গে মতভেদের জেরে একসঙ্গে পদত্যাগ করেছেন ক্লাবটির ছয়জন পরিচালক।

স্প্যানিশ গণমাধ্যম লা ভাংগার্দিয়ার বরাত দিয়ে দেশটির জনপ্রিয় ক্রীড়াবিষয়ক দৈনিক ‘মার্কা’ তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার পদত্যাগের খবর জানিয়ে একটি যৌথ বিবৃতি দিয়েছেন ছয় পরিচালক। এই পদত্যাগপত্র পাঠানো হয়েছে ক্লাব সভাপতি বার্তোমেউয়ের কাছে।

স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, বিদায় নেওয়াদের মধ্যে চারজনকে বার্তোমেউ আগেই সরে দাঁড়াতে বলেছিলেন। তারা হলেন এমিলি রুশো, এনরিকে তোমবাস, সিলভিও এলিয়াস ও হোসে পন্ত। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়ে পদত্যাগ করেছেন আরো দুজন মারিয়া তেক্সেইদোর ও জর্দি কালসামিগলিয়া।

কড়া ভাষায় লেখা বিবৃতিতে পদত্যাগের বেশ কিছু কারণ উল্লেখ করেছেন এই ছয় পরিচালক। বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের ফলে বার্সাকে এখন যেসব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হচ্ছে ও ভবিষ্যতে যেসব বাধার মুখে পড়তে হবে, সেসব উতরে যেতে ক্লাবের বর্তমান সাংগঠনিক নেতৃত্ব উপযুক্ত কি-না, তা পর্যালোচনার দাবি করেছেন তারা। তাছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন ইস্যুতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উঠে আসা বোর্ড ও ফুটবলারদের মধ্যে দ্বন্দ্বের বিষয়টিও উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকি ক্লাবের স্বার্থে করোনাভাইরাস সংকট কাটিয়ে পরিস্থিতি অনুকূলে আসার পর যত দ্রুত সম্ভব নতুন নির্বাচন ডাকার আহ্বানও জানিয়েছেন তারা।

ঝামেলা যেন পিছুই ছাড়ছে না স্প্যানিশ লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনার। চলতি মৌসুমে ফুটবলের বাইরের বিভিন্ন নেতিবাচক ঘটনায় জুড়ে গেছে ক্লাবটির নাম। ক্লাবের ক্রীড়া পরিচালক এরিক আবিদাল সাবেক কোচ এর্নেস্তো ভালভার্দেকে বরখাস্ত করা নিয়ে খেলোয়াড়দের দোষ দেওয়ায় তার মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছিলেন অধিনায়ক লিওনেল মেসি। এরপর বার্তোমেউ নিজের ভাবমূর্তি বাড়াতে দলের বর্তমান ও সাবেক অনেক খেলোয়াড়-কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কুৎসা রটাতে একটি প্রতিষ্ঠানকে ভাড়া করেছেন বলে অভিযোগ ওঠে। যদিও পরবর্তী সময়ে গণমাধ্যমের এসব দাবি ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়ে বার্সার পক্ষ থেকে বিবৃতি দেওয়া হয়। এমনকি করোনাভাইরাসের ফলে সৃষ্ট আর্থিক সংকট মোকাবিলায় মেসিদের বেতন-ভাতা কাটা নিয়েও কয়েক দিন আগে উঠেছিল নানা গুঞ্জন। পারিশ্রমিক কম নিতে খেলোয়াড়দের বার্সা বোর্ডের পক্ষ থেকে চাপ দেওয়ার খবর বেরিয়েছিল। কিন্তু সেসব বাতিল করে ৭০ শতাংশ বেতন কম নেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন মেসিরা।

 

"