টেস্ট নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন ডু প্লেসিস

প্রকাশ : ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছিল না তার। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলে ছিলেন না তিনি। ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা (সিএসএ) বিশ্রাম দিয়েছিল অফ-ফর্মে থাকা ফাফ ডু প্লেসিসকে। বিশ্রামে থেকেই বড় একটা সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন তিনি। নেতৃত্ব থেকে সরেই গেলেন এই ব্যাটসম্যান। তিন সংস্করণের ক্রিকেটেই দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়কত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন ডু প্লেসিস।

নেতৃত্বকে গুডবাই বললেও দলের সাধারণ এক সদস্য হিসেবেই খেলে যাবেন তিনি। যদিও বয়সটাও কম হয়নি। ৩৫ পেরিয়েছেন। এ কারণেই অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোটাই যৌক্তিক মনে করছেন তিনি। জানালেন, ‘দেখুন, নতুন নেতৃত্ব ও একঝাঁক তরুণ ক্রিকেটার নিয়ে আমাদের দলটা নতুন এক লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে। এ অবস্থায় মনে হলোÑ সব ফরম্যাটের অধিনায়কত্ব ছেড়ে দিলে দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটের সবচেয়ে বেশি উপকার হবে।’

ডু প্লেসিস মনে করেন, কুইন্টন ডি ককের মতো তরুণদের হাতে নেতৃত্ব তুলে দেওয়ার এটাই সেরা সময়। তবে সিদ্ধান্তটা মোটেও সহজ ছিল না। বলছিলেন, ‘সিদ্ধান্ত নেওয়াটা আমার জন্য খুবই কঠিন ছিল। তবে আমি কুইন্টন ডি কককে সব ধরনের সাহায্য করে যাব। দেখুন, গত কয়েক সপ্তাহ ক্রিকেটের বাইরে থেকে বুঝতে পেরেছি দেশের প্রতিনিধিত্ব আর দেশকে ক্রিকেটে তিন ফরম্যাটে নেতৃত্ব দিতে পারা অনেক বড় সম্মান ও মর্যাদার। মাঠে কখনো কঠিন সময় যায়। কখনো বা আপনাকে একা পথে ফেলে দেয়। এমন সব অভিজ্ঞতাই আমাকে পথ দেখিয়েছে। মানুষ বানিয়েছে।’

১১২টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দিয়েছেন ডু প্লেসিস। তবে বাজে অভিজ্ঞতা সঙ্গী হয়েছে গত বছর। ২০১৯ বিশ্বকাপে দল বিদায় নেয় প্রথম রাউন্ড থেকেই। তারপর ভারত সফরে ও ইংল্যান্ডের কাছে টেস্ট সিরিজেও দল ফ্লপ। সর্বশেষ ১৪ টেস্ট ইনিংসে ২০.৯২ গড়। নেতৃত্বের সঙ্গে ব্যাটও কথা বলছিল না! এ অবস্থায় তাকে বিশ্রামে রেখে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে কুইন্টন ডি কককে অধিনায়ক করে সিএসএ। ডু প্লেসিস সরে গেলেন, এখন তিন ফরম্যাটেই অধিনায়ক করা হতে পারে ডি কককে।

 

"