মরিনহোকে ক্লপের খোঁচা

প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

কোচিংয়ে মরিনহোর ক্যারিয়ার অনেক সমৃদ্ধ। পোর্ত, ইন্টার মিলানের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছেন। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে শিরোপা জিতেছেন। চেলসির হয়ে দুই মেয়াদে দায়িত্ব পালন করে লিগ জিতেছেন। ম্যানইউ হয়ে বর্তমানে টটেনহামের ডাগআউটে তিনি।

অন্যদিকে বিশ্বের অন্যতম সেরা কোচ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন ইয়ুর্গেন ক্লপ। জার্মান ক্লাব মেইঞ্জ, বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের পরে লিভারপুলের হয়ে সফল সময় পার করছেন তিনি। কোচ হিসেবে মরিনহো এবং ক্লপ তাই উচ্চ পর্যায়ের। কিন্তু ফুটবল ক্যারিয়ারে কে বেশি ভালো ছিলেন? গতকাল টটেনহাম-লিভারপুল ম্যাচ পূববর্তী সংবাদ সম্মেলনে জার্মানির লিভারপুল কোচ জার্গেন ক্লপকে এমনই এক প্রশ্ন করেন সাংবাদিক। ক্লপ বেশ হাস্যরসাত্মক উত্তর দিয়েছেন।

সাংবাদিককে তিনি একটু জোর দিয়েই বলেছেন, ‘আচ্ছা মরিনহো তার ক্যারিয়ারে কোন পজিশনে খেলতেন। কেউ কি জানেন? আমি তো জানি, তিনি গোলরক্ষক ছিলেন। আচ্ছা এক কাজ করুণ। গুগল করে দেখুন। আমি কিন্তু বিষয়টি জানতে চাই।’

সাংবাদিকদের মধ্যে থেকে উত্তর আসে, গুগল করার মতো সময় কোথায়। উত্তরে ক্লপ বলেন, ‘আমার হাতে অনেক সময় আছে।’ তাৎক্ষণিক গুগল সার্চে দেখা যায় মরিনহো তার ফুটবল ক্যারিয়ারে মিডফিল্ডার ছিলেন। ক্লপ তখন মজার ছলেই বলেন, ‘মরিনহো আমি দুঃখিত। তাকে আসলে একটি চ্যারিটি ম্যাচে আমি গোলরক্ষক হিসেবে খেলতে দেখেছিলাম।’

উল্লেখ্য সিনিয়র ক্যারিয়ারে মরিনহো সাত বছর ফুটবল খেলেছেন। তিনি পর্তুগালের চারটি ক্লাবে ১৯৮০ থেকে ৮৭ সাল পর্যন্ত ৯৪ ম্যাচে খেলেছেন। গোল করেছেন ১৩টি। তবে সেগুলো খুব বড় ক্লাব নয়।

অন্যদিকে ইয়ুর্গেন ক্লপ রাইক র‌্যাক এবং স্ট্রাইকার হিসেবে খেলেছেন। জার্মান ক্লাব মেইঞ্জের হয়ে ১৯৯০ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ৩২৫ ম্যাচ খেলে ৫২ গোল করেছেন তিনি। ১৯৮৭ সালে সিনিয়র ক্লাবে ডাক পেলেও প্রথম তিন বছরে মাত্র চারটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পান ক্লপ। ফুটবল ক্যারিয়ার শেষ করে ওই বছরই মেইঞ্জের ডাগআউটে দাঁড়ান।

 

"