বল গড়ানোর আগেই নিয়ম ভঙ্গের আভাস

প্রকাশ : ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনে সামিল হওয়ার লক্ষ্যে এবারের বিপিএল অনুষ্ঠিত হচ্ছে নতুন মোড়কে। কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি নয়, সপ্তম আসরে বিপিএলের তত্ত্বাবধানে থাকছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। টুর্নামেন্টের নামকরণও করা হয়েছে বঙ্গবন্ধু বিপিএল। অথচ আলোচিত এই টুর্নামেন্ট শুরু হওয়ার আগেই নিয়ম ভঙ্গের আভাস!

আসরের আগে বিসিবি ও বিপিএল গভর্নিং বডির পক্ষ থেকে বারবারই বলা হচ্ছিল, প্রতি ম্যাচে একাদশে অবশ্যই একজন ১৪০ কিলোমিটার/ঘণ্টার বেশি গতিতে বোলিং করা পেসার এবং একজন লেগস্পিনার রাখতেই হবে। দ্রুতগতির পেসারদের বিপক্ষে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের দুর্বলতা কাটিয়ে তোলা এবং বিশ্বমানের লেগস্পিনার খুঁজে বের করার লক্ষ্যে এই নিয়ম মানার বিষয়টি তখন বাধ্যতামূলক বলা হয়েছিল। কিন্তু টুর্নামেন্ট শুরুর আগের দিন এই বাধ্যবাধকতা মানতে অনীহা রংপুর রেঞ্জার্সের নয়া পরিচালক এনায়েত হোসেন সিরাজের। দলটির স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের পরিচালক হওয়ার কারণে হঠাৎ আকরাম খানকে সরিয়ে পরিচালকের পদে বসেছেন এনায়েত হোসেন। জানা গেছে, বিসিবির ইচ্ছাতেই হয়েছে এই অদল-বদল।

কাল সংবাদ সম্মেলনে এনায়েত হোসেন বললেন, ‘১৪০ কিলোমিটার গতির বোলার খেলাতে হলে সে ধরনের উইকেটও নিশ্চয়ই বানাতে হবে। আমাকে টিম কম্বিনেশন দেখতে হবে। আমি মনে করি এ ধরনের (বাধ্যবাধকতা) কোনো নিয়মই নেই। বিসিবি কেবল প্রাধান্য (লেগস্পিনার ও গতিময় পেসার) দিতে বলেছে। তবে এটা নিয়ম নয়। আমাদের অভিজ্ঞ স্পিনারের ঘাটতি আছে। যার ফলে এটা প্লেয়িং কন্ডিশনের ওপর নির্ভর করছে।’ বিপিএলে বল মাঠে গড়ানোর আগেই এমন অনীহায় গতির ঝড় তোলা বোলার ও লেগস্পিনার খেলানোর বাধ্যবাধকতার বিষয়টি কোথায় গিয়ে ঠেকে, এখন সেটাই দেখার। এমনিতেই বিপিএলে হঠাৎ নিয়ম পরিবর্তন বা নিয়ম ভঙ্গের উদাহরণ আছে অহরহ। খোদ গভর্নিং বডিই কতবার যে ম্যাচ শুরুর সময় ও টিকিটের মূল্য বদলায়, তার কোনো ইয়ত্তা নেই!

 

 

"