রিয়ালের গোল বন্যা

নকআউট পর্বে জুভেন্টাস-পিএসজি-বায়ার্ন

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ম্যাচ তখনো দুই অঙ্কে যায়নি। এরই মধ্যে ২ গোল করে ফেললেন রদ্রিগো; গড়লেন ইতিহাস। সবচেয়ে কম বয়সি ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার হিসেবে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে গোল করার দারুণ এক কীর্তির মালিক হলেন রদ্রিগো। ম্যাচের শেষ মুহূর্তে করেছেন আবার রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে প্রথম হ্যাটট্রিক। বুধবার রাতে ব্রাজিলিয়ান তারকার দুর্দান্ত নৈপুণ্যে গ্যালাতাসারাইকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিল রিয়াল মাদ্রিদ। ‘এ’ গ্রুপের অন্য ম্যাচে ক্লাব ব্রাগাকে ১-০ গোলে হারিয়ে পিএসজি উঠে গেল চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বে। চার ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে পিএসজি শীর্ষে। সমান ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে থাকা রিয়াল মাদ্রিদ অপেক্ষায় থাকল শেষ ষোলোর।

তবে ‘ডি’ গ্রুপে লকোমোটিভ মস্কো ও জুভেন্টাসের লড়াইটা জমে উঠেছিল শুরুতেই। ১২ মিনিটের মধ্যে ২ গোল দেখলেন দর্শকরা। এরপর লম্বা সময় নেই গোলের দেখা। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণের লড়াইয়ের শেষ দিকে বাজিমাত করেছে জুভেন্টাস। জিতেছে ২-১ গোলে। এই জয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বে উঠে গেল তুরিনের বুড়িরা।

পরশু রাতে গ্রুপপর্বের চতুর্থ ম্যাচটা ড্রয়ের শঙ্কাই জাগিয়েছিল। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার ডগলাস কস্টার দুর্দান্ত গোলে জয় নাটকীয় এক জয় তুলে নিয়েছে জুভেন্টাস। টুর্নামেন্টের চলতি আসরে এটা জুভদের তৃতীয় জয়। তাদের পয়েন্ট ১০।

এদিকে ‘বি’ গ্রুপে ক্ষুধার্থ বাঘ কতটা ভয়ংকর হয়ে উঠতে পারে সেটা বুঝিয়ে দিল বায়ার্ন মিউনিখ। পরশু রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে চতুর্থ রাউন্ডের ম্যাচে ২৭টি আক্রমণ করেছে বাভারিয়ান ক্লাবটি। কিন্তু জার্মান ক্লাবটি গোল পেল মাত্র দুটি। এই দুই গোলেই অলিম্পিয়াকসকে সহজে হারিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ।

অথচ বুন্দেসলিগায় সর্বশেষ ম্যাচে প্রতিপক্ষের ক্ষণদুর্গে মাত্র একটি আক্রমণ করতে পেরেছিল বায়ার্ন। সেই ম্যাচে ঝড় বয়ে গিয়েছিল তাদের বিপৎসীমার ওপর দিয়ে। শুরুতে ৯ জনের দলে নেমে আসা বায়ার্নকে শেষ পর্যন্ত ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল ইন্ট্রাক্ট ফ্র্যাঙ্কফুর্ট। সেই দুঃস্বপ্ন কাটিয়ে উঠল রেডরা।

বিব্রতকর ওই হারে বলির পাঁঠা হয়েছেন প্রধান কোচ নিকো কোভাক। তার পরিবর্তে আপাতত বায়ার্নের দায়িত্ব পড়েছে সহকারী কোচ হান্স-ডিয়েটের ফ্লিকের কাঁধে। কাল ডাগআউটে দাঁড়িয়ে প্রথম ম্যাচেই অলিম্পিয়াকসের বিরুদ্ধে বায়ার্নকে ২-০ গোলের জয় উপহার দিয়েছেন তিনি।

দারুণ এই জয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বে জায়গা করে নিল বায়ার্ন মিউনিখ। চার ম্যাচের সবকটিতে জেতা বাভারিয়ানদের পয়েন্ট ১২। চার ম্যাচের তিনটিতে হারা গ্রিক ক্লাব তালিকার চারে আছে। দুই দলের মাঝে আছে টটেনহাম হটস্পার ও রেড স্টার বেলগ্রেড।

"