‘এটা অনেক বড় সুযোগ’

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

‘অবশ্যই এটা দুর্দান্ত সুযোগ। যখন আপনি প্রথম ম্যাচ জিতে এগিয়ে থাকবেন, সেটা সব সময়ই ভালো সুযোগ। ছেলেরাও উদ্যমী হয়ে আছে ভালো কিছু করতে। আশা করি কাল (আজ) ভালো কিছু করে দেখাতে পারব।’ ভারতের বিপক্ষে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামার আগে সংবাদ সম্মেলনে ঠিক এভাবেই বলছিলেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

এটা ঠিক, যেকোনো সিরিজে প্রথম ম্যাচে জিতে গেলে অনেকটা চাপমুক্ত থাকা যায়। ভারতকে দিল্লিতে প্রথম ম্যাচে হারিয়ে দিয়ে টাইগার শিবিরও এখন চাপমুক্ত। বলা যায় একেবারে ফুরফুরে।

আজ সন্ধ্যায় রাজকোটের স্বরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে খেলতে নামবে বাংলাদেশ। এই ম্যাচে জিতলেই সিরিজ পকেটে পুরবে টাইগাররা। এমন উপলক্ষ্যের আগে মাহমুদউল্লাহর ভাবনা, ‘আমাদের হারানোর কিছু নেই। কিন্তু পাওয়ার আছে অনেক। শুরুতে আমাদের ওপর আসলে কোনো চাপ ছিল না, কালও (আজও) থাকবে না। আমরা আগ্রাসী তবে ইতিবাচক ক্রিকেট খেলব।’

এই ম্যাচে জয়ের জন্য ভারত মরিয়া হয়ে আছে। নিজেদের মাটিতে প্রথম ম্যাচে হারের পর তারা এখন ব্যাকফুটে। রোহিত-ধাওয়ানরা চাপেও আছেন। এই সুযোগই কাজে লাগাতে চায় বাংলাদেশ। তবে ভারতের মরিয়া হয়ে থাকাকে পাত্তা না দিয়ে মাহমুদউল্লাহ, ‘ওরা মরিয়া হয়ে আছে, আমরাও কিন্তু মরিয়া হয়ে আছি। এটা অনেক বড় একটা সুযোগ আমাদের জন্য, আমাদের ক্রিকেটের জন্য। আমরা প্রথমবারের মতো ভারতে একটা দ্বি-পাক্ষিক (টি-টোয়েন্টি ও টেস্ট) সিরিজ খেলতে এসেছি। যদি আমরা ভালো খেলে সিরিজটা জিততে পারি আমাদের জন্য অনেক বড় একটা অর্জন হবে এটি।’

বিজয়ী একাদশেই ভরসা : বাঁ-হাতি স্পিন টুইন তাইজুল ইসলাম ও আরাফাত সানিকে প্রায় সময় একই সঙ্গে দেখা গেল। কাল রাজকোটের নেটে গুরু ড্যানিয়েল ভেট্টরির সঙ্গে দীর্ঘ সময় কাটিয়েছেন। তাদের নিয়ে আলাদা কাজ করেছেন বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ। হাত ঘুরানো শেষে ব্যাটিংয়েও নিজেদের ঝালিয়ে নিয়েছেন তাইজুল ও সানি। দুজন নিজেদের প্রস্তুত রাখলেও আজ ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে তাদের একাদশে না থাকার সম্ভাবনাই বেশি। দিল্লিতে ঐতিহাসিক জয়ে যে একাদশ নিয়ে খেলেছে, সেই একাদশ নিয়েই রাজকোটে রাজ করতে নামবে বাংলাদেশ।

গতকাল স্বরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত অনুশীলন করেছে বাংলাদেশ দল। দ্বিতীয় ম্যাচের আগে অনুশীলনে বেশ ফুরফুরে ছিল গোটা দল। ম্যাচ-পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কণ্ঠেও আগের ম্যাচের একাদশে ভরসা রাখার ইঙ্গিত মিলল, ‘এই মুহূর্তে আমরা উইনিং কম্বিনেশনেই থাকার চেষ্টা করব।’

"